• মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮
সুপ্রভাত বাংলাদেশ

ফাইল ছবি

সংবাদ-ভাষ্য

সুপ্রভাত বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ১৭ মে ২০২১

আবদুল আজিজ

বাংলাদেশের দীর্ঘ পথ চলা ও অর্জনে বাংলাদেশ বেতারের ভূমিকা অনেক। বেতার আদি-অনন্ত। বেতার ছিল, বেতার আছে, বেতার থাকবে অনাদিকাল ধরে। বেতার আমাদের গর্বিত অহংকারের আলোকিত বাতিঘর। মিটমিট করে জ্বলছে আমাদের সমাজের নিভৃত আঁধারি ঘরে আলোর বর্তিকা হয়ে। অনেকেরই ধারণা আইসিটি বা ইন্টারনেটের অগ্রযাত্রার এ সময়ে বেতার তার গুরুত্ব হারিয়েছে। ধারণাটি সঠিক নয় মোটেই বরং ভুল প্রমাণিত। কারণ সময় যেমন বদলেছে, ঠিক তেমনই সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে প্রচারণার ধরনও বদলে গেছে। এখনো মানুষ বেতার শোনে।

বেতারে যেসব নাটক হয়েছে সেগুলো নিয়ে গর্ব করা যায়। আমাদের অনেক ঐতিহাসিক নাটক হয়েছে। জাকর্স, শেকসপিয়র, আমাদের নূরল মোমেন, আসকার ইবনে শাইখ, মোস্তফা মোহাম্মদ আব্দুর রব, শফিউদ্দিন সর্দার এবং তাদের নাটকগুলো স্মরণযোগ্য। প্রথমের দিকে প্রসাদ বিশ্বাস, আলী মনসুর—তাদের নাটক আমাদের প্রেরণা দিয়েছে। কি মঞ্চে, কি বেতারে—সব জায়গায়। স্বাধীন বাংলা বেতারের নাটকগুলোর ভূমিকাও অনেক। তার মধ্যে ‘জল্লাদের দরবার’ আমাদের মুক্তিযুদ্ধকে উদ্বুদ্ধ করেছে। এরপরে স্বাধীন বাংলাদেশেও অনেক নাটক হয়েছে। এগিয়েছে অতীতের হাত ধরেই। আব্দুল্লাহ আল মামুন, সেলিম আল দীন থেকে শুরু করে আরো কত নাট্যকার। তাদের নাটকগুলো আমাদের দেশকে চিনিয়েছে; সমাজকে, মানুষকে বুঝতে শিখিয়েছে। সমাজ বিনির্মাণে, দেশ বিনির্মাণে নিজেকে গড়তে বাংলাদেশ বেতার ও বেতারের নাটকগুলো আমাদের কাছে প্রদর্শকের মতো হয়ে আছে। 

আবহমান গ্রামবাংলার মানুষের বিনোদনের মাধ্যম ছিল বেতার, এখন অবশ্য নানারকম প্রযুক্তি আসার কারণে সেই জায়গাটি হয়তো কিছুটা এদিক-সেদিক হয়েছে। কিন্তু বেতার এখনো কাজ করে যাচ্ছে, মানুষের জন্য, দেশের জন্য। বেতারের সংগীতগুলো ভূমিসংলগ্ন মানুষদের ভেতর থেকেই উঠে আসা। এখনো বেতারের ওপর নির্ভর করে অগণিত মানুষ। বিশেষ করে দুর্যোগ-দুর্বিপাকে যখন অন্য সব মিডিয়া স্থবির, স্তব্ধ, বন্ধ হয়ে যায়; তখনো বেতার সেবা দিয়ে যায় নিরবচ্ছিন্নভাবে। গ্রামের শহরের কৃষক, মজুর, শ্রমিক, খুদে ব্যবসায়ী, মেহনতি মানুষগুলো এখনো রেডিওকে তাদের বিনোদনের প্রধান এবং বিশেষ ভরসার মাধ্যম হিসেবে মনে করে। গ্রামগঞ্জ ও দুর্গম এলাকায় এখনো বেতার তথ্য আদান-প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ গণমাধ্যম হিসেবে নিজের স্বকীয়তা বজায় রেখেছে, এগিয়ে চলছে শুভ সুন্দর আগামীর পথে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads