• সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

শোবিজ

শেফালী পাগলী

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

দয়ারামপুরের আটি গ্রাম বাজারের কাছে স্কুলমাঠের পাশে শতবর্ষী বটগাছ। এরই ছায়ায় একটি ছেঁড়া কাঁথা আর একটি মাটির হাঁড়ি নিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন শেফালীর সংসার। বয়স হবে আনুমানিক পঁচিশ কি ছাব্বিশ। সবাই তাকে ‘শেফালী পাগলী’ বলেই জানে। চারপাশের অগণিত পুরুষ, নানা বাহানায় শেফালীকে ব্যবহার করে। এতে গর্ভবতী হয়ে পড়ে শেফালী। মা হওয়ার না বোঝা অনুভূতিতেই অদ্ভুত এক স্বপ্নে বিভোর হয়ে ওঠে সে। জন্ম হয় শিশুটির। শিশুটিকে কোনোভাবেই বেঁচে থাকতে দেওয়া যাবে না। এক রাতে তোরাপ মেম্বার নিজেও শামিল হয় সেই হত্যাচেষ্টায়। সম্প্রতি এমন একটি গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘একটি শিশু এবং অগণিত পিতা’। নাটকটি রচনা করেছেন সুহাশিষ সিনহা ও পরিচালনা করেছেন আলমগীর সাগর এবং আতিকুর রহমান অপু। নাটকের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফারজানা ছবি। আরও অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, সুহাশিষ সিনহা, চাঁদনী, শিশুশিল্পী আয়াতসহ দয়ারামপুর গ্রামবাসী।

ফারজানা ছবি বলেন, ‘আমি মূলত আমার অভিনীত চরিত্রগুলোর মধ্য দিয়েই জীবনকে দেখতে শিখেছি। চরিত্র বদলের সঙ্গে সঙ্গে মানুষ বদলের খেলায় মেতেছি, অজস্র দেখা-অদেখা জীবনের মাঝে নিজেকে আবিষ্কারের চেষ্টা করেছি। আমার অভিনীত যে কটি চরিত্র অভিনয়শিল্পী ছবিকে সমৃদ্ধ করেছে, শেফালী এর মধ্যে অন্যতম।’

নিজের চরিত্রটিকে দর্শকের কাছে গ্রহণযোগ্য করে তোলার লক্ষ্যে কী করেন তিনি? ছবি বলেন, যে চরিত্রটি দর্শকদের কাছে বিশ্বাসযোগ্য হবে না, আমি সেই চরিত্রে কাজ করি না। একটি চরিত্রকে সঠিকভাবে ফুটিয়ে তুলতে হলে সেটির গভীরতা সম্পর্কে জানতে হবে। চরিত্রের মধ্যে প্রবেশ করতে হবে। এ ছাড়া নির্মাতা আমার কাছে কী চান, সেই অনুযায়ী কাজটি করার চেষ্টা করি। অনেকেই বলেন, আমাদের দেশীয় নাটকের অবস্থা এখন ভালো নয়।

 ছবির কাছে এই সময়ের নাটক কেমন মনে হচ্ছে? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, দেশে এখন অনেক টিভি চ্যানেল হওয়ার কারণে নাটক নির্মাণের সংখ্যা বেড়েছে। এর মধ্যে কেউ জেনে নির্মাণ করছে। অনেকে আবার না জেনেই নাটক নির্মাণে এসেছে। আমি মনে করি টিভি চ্যানেলগুলো আন্তরিক থাকলে ভালো কাজের সংখ্যা বাড়বে। এখন অনেক সময় মানহীন নাটকও প্রচার হওয়ার কারণে নাটকের প্রতি অনেকে বিরূপ মন্তব্য করছেন।

নাটকের চলমান সংকট উত্তরণের ক্ষেত্রে একজন শিল্পী কতটা ভূমিকা পালন করতে পারে? এই বিষয়ে ছবি বলেন, কেউ এককভাবে চলমান সংকটের সমাধান দিতে পারবে না। এটির জন্য সবার সমন্বয় লাগবে। সবাই সবার দিক থেকে এগিয়ে এলে যেকোনো সমস্যার সমাধান সহজ হয়। চ্যানেল, নির্মাতা ও শিল্পীদের একটি সমঝোতায় আসতে হবে। সবাইকে উপলব্ধি করতে হবে কাজের ক্ষেত্রটা। অনেকে এখন নাটক নির্মাণের প্রতি আগ্রহী হয়ে ওঠেছে। নতুনদের কেউ কেউ ভালো কাজ করছে।

নতুন নির্মাতাদের প্রসঙ্গে আপনার মন্তব্য কী? ছবি বলেন, নতুনরা সব সময় পরিবর্তন নিয়ে আসে। নতুনদের কাজের সুযোগ করে দিতে হয়। নতুনদের সবাই ভালো কাজ করবে এমন তো নয়। এদের মধ্যে অনেকেই একসময় খ্যাতি অর্জন করবে। এই সময়ের কয়েকজন নতুন নির্মাতা সম্পর্কে আমি জানি, যারা ভালো কাজ করছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads