• রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮
জেদি  শুভ

সংগৃহীত ছবি

শোবিজ

জেদি শুভ

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৩ এপ্রিল ২০২১

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলচ্চিত্রবিষয়ক একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান একপ্রস্থ অভিযোগ এনেছেন চিত্রনায়ক আরিফিন শুভর বিরুদ্ধে। জানিয়েছেন, অসদাচরণ করেছেন শুভ। এমনকি পরিচালক অসুস্থ হয়ে পড়ায় পরবর্তীসময়ে আর সিডিউল দেননি এই নায়ক। যার কারণে ৬০ শতাংশ কাজ হয়েও শেষ হয়নি ‘জেদি’ নামের চলচ্চিত্র। ক্ষতির মুখে পড়েছেন পরিচালক-প্রযোজক। শুনতে হয়েছে কটু কথাও।

তবে শুভ বললেন, ‘এটা অনেক আগের ছবি। ৭-৮ বছর তো হবেই। বিষয়টি নিয়ে আমি নতুন করে মন্তব্য করতে চাই না।’

সম্প্রতি একটি ইউটিউব চ্যানেলের টকশোতে অংশ নেন সোহান। সেখানে তিনি বলেন, ‘আমার দেখা সবচেয়ে খারাপ মনের অভিনেতা শুভ। তার জন্য আমি একটি ছবি শেষ করতে পারিনি। আমার অসুস্থতার কারণে তার শুটিং বন্ধ রেখেছিলাম। পরে সুস্থ হয়ে তার কাছে গেলাম। বেশ কয়েকদিন ঘুরিয়েছে। পরে আমি বললাম, ‘তুমি আমাকে আসলে ঘোরাচ্ছ কেন? আমি অসুস্থ ছিলাম বলেই তো সময় অনুযায়ী কাজ করতে পারিনি।’ শুভ আমাকে পাল্টা বলল, ‘আপনি অসুস্থ তো আমার কী করার আছে?’ এই কথাটি আমাকে চরম আঘাত করেছে। অথচ এই ব্যক্তিটিই বঙ্গবন্ধুর মতো মহান একটি মানুষের চরিত্রটিতে কাজ করছে। তার মতো ‘বেয়াদব’ আমার জীবনে পাইনি।’

সোহানুর রহমান সোহানের বড় আবিষ্কার ছিলেন প্রয়াত সালমান শাহ। ‘কেয়ামত’ ছবির মধ্যমে তাকে পর্দায় আনেন। তবে শেষদিকে এসে এ নায়কের বিরুদ্ধে ‘বেয়াদবি’র অভিযোগ এনেছিলেন সোহান। এমনকি তার পরবর্তী সৃষ্টি নায়ক শাকিলের ক্ষেত্রেও একই তকমা দিয়েছিলেন নির্মাতা।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে নারাজ আরিফিন শুভ। শুধু বললেন, ‘উনি আমার গুরুজন। আমার কাছে সম্মানীয় ব্যক্তি। গুরুজনের মুখের ওপর কথা বলার কোনো শিক্ষা আমি পাইনি। আমি শুধু নীরব থেকে তাকে সম্মান জানাতে পারি। এদিকে শুভর এহেন মন্তব্যে ধৈর্যের পরিচয় পাওয়া যায়। শুভর ফ্যানরা অবশ্য সোহানুর রহমান সোহানকে দায়ী করছেন এরকম ঘটনার জন্য।

খিজির হায়াত খান পরিচালিত ‘জাগো’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে শুভর বড়পর্দায় অভিষেক হয় ২০১০ সালে। তিন বছর বিরতির পর চলচ্চিত্র পরিচালক শফি উদ্দিন শফি পরিচালিত পূর্ণদৈর্ঘ্য ‘প্রেম কাহিনী’ চলচ্চিত্রে খলচরিত্রে অভিনয় করেন। ছবিটি ব্যবসায়িক দিক থেকেও সফল হয়।

 

 

 সে বছর ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

ইফতেখার চৌধুরীর ‘অগ্নি’, মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘তারকাঁটা’ ও আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘কিস্তিমাত’ ছবিতে অভিনয় করে চলচ্চিত্র নায়ক হিসেবে নিজের অবস্থান শক্ত করেন। ২০১৫ সালে শিহাব শাহীন পরিচালিত ‘ছুঁয়ে দিলে মন’ ছবিতে অভিনয় করে দর্শকপ্রিয়তা পান তিনি। পেয়েছেন মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার।

২০১৬ সালে তিনি আশিকুর রহমান পরিচালিত ‘মুসাফির’ ও অনন্য মামুন পরিচালিত ‘অস্তিত্ব’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। একই বছর মুক্তি পায় জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার ‘নিয়তি’। পরের বছর মুক্তি পায় জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত রোমান্টিক ঘরানার ‘প্রেমী ও প্রেমী’ ও শামিম আহমেদ রনি পরিচালিত কমেডিধর্মী ‘ধ্যাততেরিকি’।

২০১৭ সালের অক্টোবরে মুক্তি পায় দীপংকর দীপন পরিচালিত পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ‘ঢাকা অ্যাটাক’। এই ছবিতে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন আরিফিন শুভ। গত কয়েক মাস ধরেই এই চিত্রনায়ক ব্যস্ত আছেন ‘বঙ্গবন্ধু’ চলচ্চিত্র নিয়ে, যা তৈরি হচ্ছে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ওপর। ছবিটি পরিচালনা করছেন প্রখ্যাত নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads