• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৭
তাহসানের অনুরোধ

সংগৃহীত ছবি

শোবিজ

তাহসানের অনুরোধ

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৭ জুন ২০২১

কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে সারা দেশে কঠোর লকডাউন। এ সময় জরুরি পরিষেবা ছাড়া সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে। জরুরি পণ্যবাহী ব্যতীত সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসা সংক্রান্ত কাজে শুধু যানবাহন চলাচল করতে পারবে। এমনকি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হতে পারবেন না। সরকারের এই নির্দেশ মানতে ভক্তদের অনুরোধ জানালেন তাহসান খান। গতকাল শনিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করে জনপ্রিয় অভিনেতা-সংগীতশিল্পী লিখেছেন, ‘কাজ বন্ধ রেখে ঘরে বসে থাকার ইচ্ছে হয়তো নেই। কিন্তু তর্ক-বিতর্কের সময় এটা না। যদি আপনজনদের কথা ভেবে থাকেন তাহলে দয়া করে এই লকডাউনে ঘরে থাকুন।’ তাহসান যে ছবিটি শেয়ার করেছেন লকডাউনের আগে এটি তার শেষ কাজ বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি জানান, নেরোলাক কালারের জন্য করা ফটোশুটের ছবি এটি।

তাহসান একজন সংগীত শিল্পী হলেও তার বিচরণ গীতিকার, সুরকার ও কণ্ঠশিল্পী হিসেবে। শুধু তাই নয়, তিনি একজন জনপ্রিয় অভিনেতাও। সেইসঙ্গে দারুণ উপস্থাপক। সব ক্ষেত্রেই তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। তাহসান ইউনিলিভারে ২০০৩ সালের জানুয়ারি থেকে ২০০৪ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন। ২০০৬ সালের এপ্রিল থেকে ২০০৮ সালের জুন পর্যন্ত ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটিতে প্রভাষক পদে কর্মরত ছিলেন। ২০১০-এর জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট ফর রিসার্চ ইন মার্কেটিং-এ গবেষণা সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন। ২০১০ সালের মে থেকে ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনি ইউনির্ভাসিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ বা ইউল্যাব-এ শিক্ষকতা করছেন। ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন তাহসান।

তিনি ছায়ানট থেকে ছয় বছর রবীন্দ্রসংগীত শিখেছেন। ১৯৯৮ সালে তিনি ও আরো কয়েকজন যুবক মিলে গঠন করেন ব্যান্ডদল ব্ল্যাক, পরবর্তীতে তিনি ব্যন্ড দল থেকে আলাদা হয়ে নিজস্ব ধারার গানে সম্পৃক্ত হন। 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads