• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৭
ভালো নেই আফজাল শরীফ

অভিনেতা আফজাল শরীফ

ফাইল ছবি

শোবিজ

ভালো নেই আফজাল শরীফ

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৬ জুলাই ২০২১

ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা আফজাল শরীফ। দীর্ঘ সময় যাবত মেরুদণ্ড, কোমর ও হাড়ের ব্যথায় ভুগছেন এই কৌতুক অভিনেতা। ২০১৮ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর এই শিল্পীকে চিকিৎসা সহায়তায় ২০ লাখ টাকার অনুদান দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। বর্তমানে তেমন একটা ভালো নেই আফজাল শরীফ। বলেন, আগের মতোই আছি। মেডিসিনের ওপর চলছে। আমি ভালো নেই।

করোনার এই সময়ে বাসাতেই বেশিরভাগ সময় কাটে তার। এক ধরনের বন্দি জীবন। সর্বশেষ ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ ২’ ছবিটি করেছিলেন। সেই হিসেবে অনেকদিন ধরেই অভিনয়ের বাইরে আছেন। অসুস্থতাই কি এই বিরতির কারণ? এমন প্রশ্নের জবাবে আফজাল শরীফ বলেন, শুধু অসুস্থতা নয়। আসলে এখন তেমন কোনো সিনেমার শুটিং হচ্ছে না। ফাঁকে ফাঁকে দুই-একটা সিনেমার শুটিং করেন কেউ কেউ। আর আগে অনেক মানুষ যেতো সিনেমা হলে। এখন তো হলের অবস্থা খুব খারাপ। আসলে করোনা মহামারী সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে।

অভিনয়টাকে মিস করেন এ অভিনেতা। বলেন, অভিনয়ের পোকা ছিলাম। এখনও আছি। হলে যখন সিনেমা মুক্তি পেত আনন্দের কোনো শেষ থাকতো না। নিজের অভিনয় নিজে দেখে ভুল ধরার চেষ্টা করতাম। কোন জায়গায় একটু অন্যরকম করলে ভালো হতো সেটা খেয়াল করতাম।

চলচ্চিত্রের সহকর্মীরা এখন আর তেমন খোঁজখবর নেন না তার। আফজাল শরীফ সাফ বলেন, না। আমার খোঁজ কেউ নেয় না। আমাদের শিল্পীদের একটা সমিতি আছে। সেখান থেকেও খোঁজ নেয়া হয় না। অসুস্থ হওয়ার পর প্রথমদিকে দু-একজন ফোন করতো। এখন আর করে না। ক্যারিয়ার নিয়ে কোনো স্বপ্ন আছে যেটা পূরণ হয়নি? আফজাল শরীফ বলেন, হ্যাঁ, আছে। নিদের্শনা দিতে চাই। করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই কাজটি করবো। প্রথমে নাটক নির্দেশনায় যাবো। তারপর চলচ্চিত্র। এমনই চিন্তা ভাবনা করেছি। উল্লেখ্য, ১৯৮৮ সালে হুমায়ূন আহমেদ রচিত ‘বহুব্রীহি’ ধারাবাহিক নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে আফজাল শরীফ ছোটপর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন। ১৯৯২ সালে গৌতম ঘোষ পরিচালিত ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। অনবদ্য অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ দুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন এ অভিনেতা।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads