• রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
‘জীবন ও কাজের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে চাই’

চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া

সংগৃহীত ছবি

শোবিজ

‘জীবন ও কাজের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে চাই’

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২২ জুন ২০২২

দুই বাংলার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া। থাইল্যান্ডে যাচ্ছেন এই তারকা। কারণ ‘বিবাহ অভিযান’। না, বিয়ে করতে যাচ্ছেন না ঢাকার নায়িকা, যাচ্ছেন শুটিংয়ে। সিনেমার নাম ‘বিবাহ অভিযান ২’। ২০১৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘বিবাহ অভিযান’ সিনেমার সিক্যুয়েল নির্মাণ করতে যাচ্ছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসভিএফ। নতুন সিনেমায় নতুন পরিচালক বাদে আগের সবাই আছেন। সিক্যুয়েলটি পরিচালনা করছেন সায়ন্তন ঘোষাল। ভারতের পাশাপাশি শুটিং হবে বিদেশেও। সে জন্য থাইল্যান্ডে উড়াল দিচ্ছেন নুসরাত ফারিয়া। নায়িকা জানিয়েছেন, ‘শুটিং হবে থাইল্যান্ডে। তাই এবার কোরবানির ঈদে দেশে থাকা হচ্ছে না আমার। বিদেশেই শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হবে।’ এবারের ঈদে ‘আইকনম্যান’ শিরোনামের একটি নাটকে দেখা যাবে নুসরাত ফারিয়াকে। এ ছাড়া দেশে মুক্তির অপেক্ষায় আছে তার ‘অপারেশন সুন্দরবন’, ‘মুজিব : একটি জাতির রূপকার’, ‘পাতাল ঘর’সহ একাধিক সিনেমা। সমপ্রতি কলকাতায় ‘রকস্টার’ সিনেমার কাজ শেষ করেছেন।

বাংলাদেশে ফারিয়া অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘ধ্যাততেরিকি’, ‘প্রেমী ও প্রেমী’, ‘শাহেন শাহ’, ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ‘বিবাহ অভিযান’, ‘হিরো ফোরটুয়েন্টি’, ‘ইন্সপেক্টর নোটিকে’, ‘আশিকী’, ‘বস টু’ এবং ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে ‘বাদশা’ ছবিটি।

কথা হলো নুসরাত ফারিয়ার অগ্রযাত্রার ভাবনা নিয়ে। তিনি কি বলিউডের ছবিতে অভিনয় করতে চান? ফারিয়া বলেন, ‘ঢাকা ও কলকাতায় যে পরিমাণ সিনেমা, বিজ্ঞাপন ও স্টেজ শো পাই, তাতেই আমি সন্তুষ্ট। এসব করার পর আর কিছু করার সময় পাব না। কারণ, আমি জীবন ও কাজের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে চাই। অভিনয় আমার কাছে ভীষণ জরুরি, কিন্তু সেটাই সবকিছু নয়। পাশাপাশি পরিবার ও পড়াশোনাও আমার জন্য জরুরি।’ ইনস্টাগ্রামে তার সাড়ে ৩০ লাখ অনুসারী। জীবনের রঙের ভাগ তাদেরও দেন ফারিয়া। বললেন, ‘হাসতে খেলতে খুলেছিলাম অ্যাকাউন্টটা। তখন অনেকেই এখানে অ্যাকাউন্ট খোলেনি। লোকে কেবল আমাকে ফলো করে, তা নয়। আমিও প্রায় দেড় হাজার লোককে ফলো করি। এ ছাড়া ব্লগ পোস্ট, ডেইলি লাইফ, বিশেষ করে ফিটনেস, খাওয়া-দাওয়ার বিষয়গুলোও অনুসরণ করি। আর সেলিব্রিটিদের মধ্যে ফলো করি প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে। তাকে আমার খুব পছন্দ।’ নুসরাত ফারিয়া সাতটি ব্র্যান্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। যার মধ্যে মোবাইল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হুয়াই এবং বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড ‘ক্লিয়ার’ অন্যতম। হঠাৎ করে কেন এভারলাভ টারমারিক পণ্যের সঙ্গে যুক্ত হওয়া? এমন প্রশ্নের উত্তরে নুসরাত বলেন, ‘কেন নয়, এই পণ্যটি ভারতে বেশ জনপ্রিয়। এটা হারবাল প্রোডাক্ট। এর আলাদা গ্রহণযোগ্যতা আছে। আর এই পণ্যের সঙ্গে যারা যুক্ত তারাও এমন কাউকে দিয়েই কাজটা করান, যার মাধ্যমে তাদের প্রমোশন ভালো হবে। তো সেই সুযোগটা আমি কেন নেব না?’

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads