• শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রেমে মজেছেন তমা!

সংগৃহীত ছবি

শোবিজ

প্রেমে মজেছেন তমা!

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৩ জুলাই ২০২২

প্রায় এক বছর ধরে ঢালিউডে গুঞ্জন, রায়হান রাফি এবং তমা মির্জা নাকি চুটিয়ে প্রেম করছেন। শিগগির তারা বিয়ে করবেন বলেও ইন্ডাস্ট্রিতে ফিসফাস। কিন্তু কতটা সত্যি এই গুঞ্জন? আসলেই কি পরিচালক আর নায়িকার মধ্যে কিছু আছে? এমন নানা প্রশ্ন অনুরাগী মহলে। তমা মির্জার দাবি, ‘রাফির সঙ্গে তো গুঞ্জন অনেক আগে থেকেই। কিন্তু এই গুঞ্জনের কোনো ভিত্তি নেই। আমরা খুবই ভালো বন্ধু। এর বাইরে আমাদের মধ্যে অন্য কোনো সম্পর্ক নেই।’

নায়িকা জানান, ‘আমার বন্ধু সংখ্যা কম, রাফিরও তাই। তাই ঘুরেফিরে আমাদের সার্কেলেই আমরা মিশি, ঘুরে বেড়াই। যখন সার্কেল কম হয়, একই এবং কম সংখ্যক মানুষের সঙ্গে বারবার ঘোরা হয়, তখন নানা ধরনের কথা মানুষ বলে। এছাড়া যেহেতু ব্যাক টু ব্যাক রাফির সঙ্গে আমার দুই-তিনটা প্রজেক্ট খুবই আলোচিত হয়েছে, তাই আমদের নিয়ে মিডিয়ার মানুষের আগ্রহ বেশি। সেই আগ্রহ থেকেই নানা কথা ছড়ায়।’

এই সম্পর্কের ভবিষ্যৎ কী? বিয়ে পর্যন্ত গড়ানোর সম্ভাবণা আছে কি? তমা মির্জা বলেন, ‘রাফির সঙ্গে সম্পর্কটা যেহেতু ওরকম কিছু না, তাই ফিউচার প্ল্যানের প্রশ্নই উঠে না। আমি ভাগ্যে অনেক বিশ্বাসী। ভাগ্য যেখানে নিয়ে যাবে সেখানেই যাবো। তবে আমি কনফিডেন্স নিয়ে বলতে পারি, আমাদের মধ্যে কিছু নেই। আবার এটাও বলতে পারব না যে ফিউচারে কিছু হবে না। ভবিষ্যত তো কেবল আল্লাহ্ই জানেন। বাট নাউ উই আর জাস্ট ফ্রেন্ড।’ ২০১০ সালে এফ আই মানিক পরিচালিত ‘বলো না তুমি আমার’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তমা মির্জার।

পরবর্তীতে একবার বলো ভালোবাসি, মানিক রতন দুই ভাই, ইভটিজিং, তোমার মাঝে আমি, নদীজন, গেম রিটার্নস, অহংকার, গ্রাস, গহীনের গান সিনেমাগুলোতে তাকে দেখা যায়। এর মধ্যে ২০১৫ সালে ‘নদীজন’ সিনেমাটির জন্য পান ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’।

ব্যক্তিগত জীবনে এই নায়িকা ২০১৯ সালের ৭ মে বিয়ে করেন কানাডাপ্রবাসী ব্যবসায়ী হিশাম চিশতীকে। টেকেনি সে সংসার। গত বছরের সেপ্টেম্বরে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এর পরই তমা মির্জার সঙ্গে পরিচালক রায়হান রাফির নাম জড়িয়ে যায়। মূলত, তাদের একসঙ্গে তোলা একাধিক ছবি থেকেই গুঞ্জনের সূত্রপাত। এই গুঞ্জনের শেষ কোথায়? আপাতত তারই অপেক্ষা।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads