• মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮
নাটোরে পরিবহণ ধর্মঘট : যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে

নাটোরে পরিবহণ ধর্মঘটে রস্তা ফাঁকা পেয়ে মনের আনন্দে সাইকেল চালাচ্ছে এক চালক

ছবি : নাটোর প্রতিনিধি

যোগাযোগ

নাটোরে পরিবহণ ধর্মঘট : যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে

  • নাটোর প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৮ অক্টোবর ২০১৮

নাটোরে শুরু হয়েছে ৮ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকা ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট। ধর্মঘটের কারণে সকাল থেকেই নাটোরের সাথে সারাদেশের সকল রুটের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফাঁকা হয়ে গেছে সড়ক মহাসড়ক গুলো।

রোববার সকালে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সহ নাটোরের কোন বাসস্ট্যান্ড থেকে কোন ধরনের বাস চলাচল করতে দেখা যায়নি। বন্ধ রয়েছে পন্যবাহী যান চলাচল।

এদিকে সপ্তাহের প্রথম কর্ম দিবসে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন কর্মজীবী মানুষ সহ সাধারণ যাত্রীরা। গন্তব্যের জন্য ছোট ছোট যানবাহনই তাদের একমাত্র ভরসা।

তবে নাটোর রেল ষ্টেশন থেকে যথা সময়ে সব ধরনের ট্রেন ছেড়ে যেতে দেখা গেছে। পরিবহন ধর্মঘটের কারনে ট্রেন গুলো ছিল যাত্রীদের প্রচন্ড চাপ।

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার লক্ষীকোল গ্রামের আব্দুল মালেখ জানান, প্রায় ১২ কিঃমিঃ দুর থেকে ঢাকা যাওয়ার উদ্যেশে নাটোর শহরে আসছি। এখন দেখি সব কাউন্টার বন্ধ, রোডে কোন গাড়ী চলছে না। যে কোন ভাবেই হোক আজকের মধ্যে আমাকে ঢাকা পৌছতে হবে। কিন্তু কি ভাবে যাব, তার কোন কুল কিনারা পাচ্ছি না। দ্রুত এর একটা সমাধান চাই।

নাটোরের পরিবহন শ্রমিক মিলন ড্রাইভার জানায়, মহাসড়কে ব্যাটারী চালিত থ্রি-হুইলারসহ ছোট ছোট যানবাহন চলার কারণে দূর্ঘটনা ঘটে। আর এই দূর্ঘটনার কারণে তাদের জেল জরিমানা করা হয়। যা মেনে নেওয় তাদের পক্ষে মোটেই সম্ভব নয়। এ সমস্য দূর করতে তার ধর্মঘট ডেকেছেন। অপরদিকে হঠাৎ করে ডাকা এই ধর্মঘটের কারণে সবচেয়ে বেশী ভোগান্তিতে পড়েছে রাজশাহী, পাবনা, বগুড়াসহ বিভিন্ন স্থানে কর্মরত অফিসগামী যাত্রী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সকল যাত্রীরা। ব্যাটারী চালিত থ্রি-হুইলারসহ ছোট ছোট যানবাহনে করে তাদের গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। সরকারের কাছে দ্রুত এই সমস্যার সমাধান চেয়েছেন তারা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads