• শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯
এক্সপ্রেসওয়ের টোল: প্রাইভেটকার ১৪০, মোটরসাইকেল ৩০ টাকা

সংগৃহীত ছবি

যোগাযোগ

এক্সপ্রেসওয়ের টোল: প্রাইভেটকার ১৪০, মোটরসাইকেল ৩০ টাকা

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৯ জুন ২০২২

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক্সপ্রেসওয়ে (ঢাকা-মাওয়া-ভাঙা) পার হতে সর্বোচ্চ এক হাজার ৬৯০ টাকা টোল নির্ধারণ করেছে সরকার। আর সর্বনিম্ন টোল ধরা হয়েছে ৩০ টাকা। ৫৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সড়কে ১ জুলাই শুক্রবার থেকে নতুন টোল হার কার্যকর হবে। সড়ক মন্ত্রণালয়ের টোল ও এক্সেল শাখার উপসচিব ফাহমিদা হক খানের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ১ জুলাই থেকে এই এক্সপ্রেসওয়ে পার হতে একটি ট্রেইলারকে দিতে হবে ১ হাজার ৬৯০ টাকা, হেভি ট্রাক ১ হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক ৫৫০ টাকা, বড় বাস ৪৯০ টাকা এবং মিনি ট্রাককে দিতে হবে ৪১৫ টাকা।

এছাড়া মিনিবাস বা কোস্টার ২৭৫, মাইক্রোবাস ২২০, ফোর হুইলার যানবাহন ২২০, সিডান কার ১৪০ ও মোটরসাইকেলের জন্য ৩০ টাকা হারে টোল নির্ধারণ করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার এই এক্সপ্রেসওয়েতে চলাচলের জন্য মিডিয়াম ট্রাকের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ১০ টাকা হারে টোল নির্ধারণ করা হয়।

দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে ঢাকা-ভাঙা চালু হয় ২০২০ সালের ১২ মার্চ। শুরু থেকেই জানানো হয়, এই সড়ক ব্যবহার করতে টাকা দিতে হবে। তবে পদ্মা সেতু চালুর আগ পর্যন্ত টোল বসানো হবে না। এই সড়কে কয়েকটি সেতুতে আলাদা টোল আছে। এক্সপ্রেসওয়ের টোল চালু হওয়ায় এই সেতুগুলোর জন্য আলাদা কোনো টাকা দিতে হবে না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৫ জুন দেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামো পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন। পদ্মা সেতু পারাপারে মোটর সাইকেলের জন্য সর্বনিম্ন একশ’ টাকা এবং বড় বাসের জন্য দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল নির্ধারণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads