• রবিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২ মাঘ ১৪২৮

ফিচার

শীতে নিমন্ত্রণের সাজ

  • প্রকাশিত ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

উৎসব-পার্বণ, বিয়ে-শাদি, বিভিন্ন রকম দাওয়াত ও পারিবারিক আয়োজনে শীতকাল মুখর থাকে। শীতের রুক্ষ আবহাওয়া ত্বককে করে তুলে আরো শুষ্ক। দাওয়াত বা পার্টির ভারী মেকাপ সহজে বসতে চায় না। ত্বকের ন্যাচারাল জেল্লা ধরে রাখার সাজগোজ নিয়ে জানিয়েছেন—মেকআপ এন্থুসিয়াস্ট ফারহানাজ মারীয়া

 

 

বেজ প্রস্তুতি

মেকআপের আগে চাই ত্বকের প্রস্তুতি। কম ক্ষারযুক্ত ফেসওয়াশে মুখ ও গলা ধুয়ে হালকা মুছে স্ক্রাবিং করে ত্বকের মরা কোষ ও হোয়াইট হেডস পরিষ্কার করে নিন। পরিষ্কার আর্দ্র ত্বকে দুই ফোঁটা হায়ালুরনিক সিরাম ম্যাসাজ করে রেগুলার ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। দিনের বেলা এসপিএফ যুক্ত সানব্লক ব্যবহার করুন। শীতে ত্বক ট্যানিংয়ের শিকার হয় বলে কুয়াশা ভেজা দিনেও সানব্লক ব্যবহার করুন। শীতে ত্বককে উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত দেখাতে সাধারণত গ্লোয়ি মেকআপ করা হয়। তাই মেকআপের শুরুতে বেস প্রস্তুত করতে ডিউই বা লুমিনাস প্রাইমার ব্যবহার করুন। এতে ত্বক না ঘেমে ন্যাচারাল জেল্লা দেবে।

 

বেজ মেকআপ

ভারী মেকআপ করতে চাইলে—চোখের নিচে কালো দাগ, মুখে ব্রণের দাগ থাকলে ফাউন্ডেশন করার আগে কালার কারেকশন করে নিন। ত্বকের রঙের সাথে মিলিয়ে শেডের কন্সিলার এ ধরনের দাগ লুকিয়ে ফেলে। দাগ বেশি গাঢ় হলে শুধু দাগের ওপর অল্প পরিমাণে অরেঞ্জ কারেক্টর ব্যবহার করুন। শীতকালে ম্যাট ফিনিশের ফাউন্ডেশনের পরিবর্তে বাছাই করুন ডিউয়ি ফাউন্ডেশন। শীতে ফাউন্ডেশন রুক্ষ ত্বকে যেন স্মুথভাবে বেন্ড হয় সেজন্য বিউটি স্পঞ্জটিকে ডিউয়ি মেকাআপ সেটিং স্প্রে দিয়ে ভিজিয়ে নিন। এতে মেকআপ ন্যাচারাল হওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘসময় ত্বকে বসে থাকবে। এরপর চোখের নিচে, নাকের ওপর লম্বালম্বি ভাবে, কপালে ও থুতনিতে কনসিলার দিয়ে স্পঞ্জ দিয়ে ভালোভাবে মিলিয়ে নিন। শীতকালে পাউডার জাতীয় মেকাআপ সামগ্রী যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করুন। তাতে ত্বক কম শুষ্ক দেখাবে।

 

মুখের সাজ

শীতে ভালো কাজ করে ক্রিম কন্ট্যুরিং। ত্বকের চেয়ে কয়েক শেড গাঢ় রং দিয়ে চিকবোন, জ-লাইন, কপালে ও নাকের দুপাশে কন্ট্যুর করুন। অবশ্যই কন্ট্যুরিং ঘন ব্রাশের সাহায্যে ব্লেন্ড করবেন ভালোভাবে। ঠিকমতো ব্লেন্ড নাহলে কন্ট্যুর উল্টো মেছতার মতো দেখাবে। কন্ট্যুরের ঠিক ওপরে গালে ব্লাশ লাগাতে হবে। শীতকালে লিকুইড ব্লাশ খুব ভালো দেখাবে। এটা দেখতেও যেমন ন্যাচারাল তেমনি ট্রেন্ডিও। ব্লাশের জন্য ত্বকের সাথে মানানসই রঙ বাছাই করুন। পরনের পোশাকের রংও রাখুন মানানসই। সিম্পল সাজের জন্য হালকা কোরাল রং বা বেবি পিংক বেছে নিতে পারেন। গালের সবচেয়ে উঁচু চিকবোন, ব্রাওবোন, কপালে, ঠোঁটের ওপর, নাকের ব্রিজের কিছুটা অংশে আঙুলের সাহায্যে ডট দিয়ে অ্যাপলাই করুন লিকুইড হাইলাইটার। তারপর আঙুলের সাহায্যে ব্লেন্ড করে নিন। রাতে জমকালো সাজের জন্য এর উপর দিতে পারেন একই রঙের পাউডার হাইলাইটার। মেকআাাপ শেষে মুখে ডিউয়ি ফিনিশ সেটিং স্প্রে দিয়ে দূর থেকে হালকা করে স্প্রে করে নিন।

 

চোখের সাজ

শীতের রাতের দাওয়াতে স্মোকি আই মেকআপ বেশ মানানসই। সেজন্য কালো কাজলে চোখের পাতায় বেজ ও স্মাজ করে নিতে পারেন। ব্রাউন বা ব্ল্যাক স্মোকি আই যে-কোনো ওয়েস্টার্ন আউটফিটের সাথেও মানানসই।

দিনের বেলা রঙিন আই শ্যাডোর পরিবর্তে নিউট্রাল লুক রাখা যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে গালের দেওয়া লিকুইড ব্লাশ টাই আঙুলের সাহায্যে চোখে একটু লাগিয়ে নিতে পারেন। স্মোকি আইয়ের সাথে ড্রামা এড করতে চাইলে পরতে পারেন ভিন্ন রঙের লেন্স বা ফলস আই ল্যাশ। চোখের লোয়ার লাইনে ন্যুড কাজল আর গাঢ় রঙের শ্যাডোর মাধ্যমে স্মাজ করে চোখের সাজকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন। দাওয়াতের ধরণ বুঝে চোখের পাতায় গ্লিটারও ব্যবহার করতে পারেন। ফলস ল্যাশ না পরলেও মাশকারা লাগাতে ভুলবেন না।

 

ঠোঁটের সাজ

চোখের সাজের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে করুন ঠোঁটের সাজ। গাঢ় স্মোকি চোখের সাজের সাথে ব্রাউন লিপস্টিক মানানসই হবে। তবে সিম্পল চোখের সাজ হলে ঠোঁটে পরে নিতে পারেন বারগেন্ডি, মেরুন, হট পিংক, ফুশিয়া, চকলেট ব্রাউন রঙের লিপস্টিক। শীতে ঠোঁটের সাজে নতুন মাত্রা যোগ করতে পারে লিপগ্লস। এড়িয়ে চলুন ম্যাট লিপস্টিক। চোখে ও ঠোঁটে একই সাথে গাঢ় রং পরা থেকে বিরত থাকুন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads