• শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৭
রাজধানীতে বাড়ছে ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ

প্রতীকী ছবি

মহানগর

রাজধানীতে বাড়ছে ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৯ জুলাই ২০২১

কঠোর বিধিনিষেধের সপ্তম দিন আজ। সকাল থেকেই রাজধানীতে ব্যক্তিগত গাড়ির চাপ বাড়ছে। প্রয়োজনের তাগিদেই রাস্তায় বের হচ্ছে মানুষ। তাই অনেকটাই শিথিল হয়ে পড়েছে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন।

সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান খোলায় চাকরিজীবীদের বের হতে হচ্ছে। এদিকে চাকরি টিকিয়ে রাখা, অন্যদিকে বিধিনিধেষের নিয়মের জালে ভোগান্তি রয়েছে সড়কে।

ব্যাংকসহ সরকারি প্রতিষ্ঠানে যারা কাজ করেন তারাই ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বের হচ্ছেন। রিকশায় করেও অফিস করতে হচ্ছে জরুরি সেবায় নিয়োজিতদের। টিকাগ্রহীতার পাশাপাশি সড়কে চলাচল করছেন রোগীরা। অকারণ বাইরে আসা ঠেকানো তৎপর রয়েছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই রাজধানী ঢাকায় দেখা যায় ব্যক্তিগত গাড়ির চলাচল। চেকপোস্টগুলোতেও তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। গাড়ির কাগজপত্র ও উপযুক্ত কারণ দেখাতে ব্যর্থ হলে দেয়া হচ্ছে মামলা। ব্যাংকসহ জরুরি সেবাখাতে নিয়োজিত অনেক প্রতিষ্ঠান খোলা থাকায় চাকরি বাঁচাতে কর্মস্থলে ছুটছেন অনেকেই। কিন্তু, অনেক প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব গাড়ির ব্যবস্থা না থাকায় তারা পড়েছেন ভোগান্তিতে। হেঁটে কিংবা রিকশায় অফিসে যাচ্ছেন তারা।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করায় ১ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। পরে বিধিনিষেধের মেয়াদ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। এরপর কোরবানির ঈদ এবং জীবন জীবিকার প্রশ্নে ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত ৮ দিনের জন্য বিধিনিষেধ শিথিল করে সরকার। এরপর ২৩ তারিখ থেকে ফের শুরু হয় কঠোর বিধিনিষেধ। ৫ আগস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ বহাল থাকবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads