• বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯

মহানগর

টানা ছুটিতে ফাঁকা হতে শুরু করেছে রাজধানী

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ৩০ এপ্রিল ২০২২

এবার ৩০ রোজা পূর্ণ হলে ঈদ উদযাপন হবে ৩ মে। এক্ষেত্রে ঈদুল ফিতরে দেশের সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীরা ২৯ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত টানা ছয় দিনের ছুটি পেয়েছেন।

লম্বা ছুটি পেয়ে নাড়ির টানে যান্ত্রিক নগরী ঢাকা ছাড়ছেন কর্মব্যস্ত মানুষ। ফলে যানজটের নগরী এখন অনেকটাই ফাঁকা হয়ে এসেছে। ঢাকার চিরাচরিত সেই যানজট এখন দেখা যাচ্ছে না। যানজট না থাকায় মানুষ সহজেই ঢাকার ভেতরে যাতায়াত করতে পারছেন।

ঈদের ছুটি মূলত তিনদিন। তবে ঈদের আগে সাপ্তাহিক ছুটি ও মে দিবসের ছুটি মিলিয়ে এবার ঈদের ছুটি বেড়ে ছয়দিন হয়ে গেছে।

ঈদের আগের শুক্রবার ছিল ২৯ এপ্রিল। পরদিন শনিবার ৩০ এপ্রিল। ১ মে রোববার শ্রমিক দিবসের সরকারি ছুটি। একই সঙ্গে এদিন ঈদের ছুটিও শুরু হচ্ছে। এরপর সোম ও মঙ্গলবার ঈদের ছুটি। তবে রোজা যদি ৩০টি হয় সেক্ষেত্রে বুধবারও (৪ মে) ঈদের সরকারি ছুটি থাকবে। ফলে টানা ছয়দিন ছুটি পাচ্ছেন চাকরিজীবীরা।

এদিকে, কেউ কেউ ৫ মে (বৃহস্পতিবার) বাড়তি ছুটি নিয়েছেন। এতে ৬ ও ৭ মে (শুক্র ও শনিবার) সাপ্তাহিক ছুটি মিলিয়ে মোট নয়দিন ছুটি কাটাতে পারবেন। এমন লম্বা ছুটি মেলায় গত বৃহস্পতিবার থেকেই ঢাকা ছাড়তে মানুষের ঢল নামে বাস, ট্রেন ও লঞ্চে।

এতে কিছুটা হলেও যানজটের নগরী ঢাকার চিত্র বদলে গেছে। শনিবার মতিঝিল গিয়ে দেখা যায়, কর্মব্যস্ত অঞ্চলটি প্রায় ফাঁকা। মানুষের আনাগোনা যেমন কম, গাড়ির চাপও তেমনি কম।

মতিঝিলের এক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মী জানান, অফিসের কাজে ধানমন্ডি থেকে মতিঝিল এসেছি। রাস্তায় কোনো যানজট নেই। সহজেই চলে আসতে পেরেছি। ঈদের ছুটিতে অধিকাংশ মানুষ ঢাকা ছেড়েছেন। আমি আগেই ঝিনাইদহের গ্রামের বাড়িতে পরিবার পাঠিয়ে দিয়েছি। আজ অফিসের কাজ শেষ করে আমি রাতে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেবো। ঢাকায় ফিরবো ৭ এপ্রিল। অনেকদিন পর এমন লম্বা ছুটি পেলাম।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads