বাংলাদেশের খবর

আপডেট : ২২ মার্চ ২০২১

ভিডিও ইন্টারভিউতে করণীয়


বর্তমান সময়ে সাক্ষাৎকার নিতে গুগল মিট, জুম বা স্কাইপ অ্যাপ বেশি ব্যবহূত হয়ে থাকে। এই অ্যাপস সম্পর্কে টুকিটাকি একটা ধারণা নিয়ে নিন। এতে আপনার ডিজিটাল ইন্টারভিউকে আকর্ষণীয় করে তুলবে এবং আপনার দক্ষতা নিয়োগকর্তার কাছে ক্লিয়ার হবে। সরাসরি বা মুখোমুখি সাক্ষাৎকারের মতো ভিডিও সাক্ষাৎকারেও আত্মবিশ্বাসী হওয়া, নিজেকে প্রেজেন্ট করা বুদ্ধিমানের কাজ। কিছু বিষয়ে সতর্ক থাকলে ভিডিও সাক্ষাৎকারের চ্যালেঞ্জ জয় করে নিজেকে সামনে এগিয়ে রাখতে পারেন

নিজেকে প্রস্তুত করুন

জুম বা স্কাইপে অথবা অন্য কোনো প্ল্যাটফরমে ইন্টারভিউ হচ্ছে বলে নিছক হেঁয়ালিপনার উপায় নেই। এটিও মুখোমুখি ইন্টারভিউ। সরাসরি ইন্টারভিউতে যাওয়ার জন্য যেভাবে প্রস্তুতি নিতেন, ওভাবেই প্রস্তুতি নিন। প্রস্তুত থাকুন। ভাবুন, সাক্ষাৎকারগ্রহণকারী এমন কাউকে খুঁজছেন যিনি কাজ করতে আগ্রহী ও দক্ষ এবং সেই ব্যক্তিটি আপনি।

পোশাকে ইমপ্রেস

সরাসরি ইন্টারভিউতে যাওয়ার জন্য যেমন ফরমাল ড্রেস এবং পরিপাটি করে নিজেকে প্রস্তুত করেন; ভিডিও ইন্টারভিউয়েও ঠিক সেরকম পোশাক-আশাকে নিজেকে পরিপাটি করে প্রেজেন্ট করুন। আপনি বাসায় আছেন সে ভাবনা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন। পোশাকে, আনুষ্ঠানিকতায় নিজেকে প্রেজেন্ট করুন যে, আপনি প্রস্তুত এবং সরাসরি ইন্টরভিউ দিচ্ছেন। যদি ভেবে থাকেন, বাড়িতেই তো, কোনোরকম একটা ড্রেসে ইন্টারভিউ শেষ করি। তাহলে আপনি ভুলের স্বর্গে বাস করছেন। এ ছাড়া সম্পূর্ণ পোশাক ক্যামেরায় ভালো দেখাচ্ছে কি না, যে প্ল্যাটফরমে বসেছেন সেটা পরিপাটি আছে কি না নিশ্চিত করুন। খেয়াল রাখুন আপনার পুরো শার্ট ভিডিও ফ্রেমের মধ্যে আছে কি না; ফ্রেমের বাইরে থাকলে অদ্ভুত দেখাতে পারে।

ভিডিও যন্ত্রপাতি পরীক্ষা করুন

ইন্টারভিউয়ের জন্য যে প্ল্যাটফরম, ইন্টারনেট সংযোগ, ডিভাইস, ট্রাইপড, মাইক্রোফোন ব্যবহার করবেন তা ইন্টারভিউয়ের আগেই সেটআপ করে পরীক্ষা করুন। প্রযুক্তিগত যত জটিলতা আছে মীমাংসা করে ফেলুন। প্রয়োজনে একজন বন্ধু বা পরিবারের সদস্যের সাথে ভিডিও চ্যাট করুন, যাতে নিশ্চিত হওয়া যায়, ভিডিও ফ্রেম, সাউন্ট, ডিভাইস ওকে। ইন্টারভিউ শুরু হওয়ার আগেই নিশ্চিত হন যে মৌলিক বিষয়গুলো জানেন, বিশেষ করে কীভাবে আনমিউট করতে হয় সে বিষয়ে জেনে নিন। লাইটিংয়ের বিষয়েও খেয়াল রাখবেন, যেন ফোকাস করার মতো আলো আপনার ওপরে আছে।

বেশি দূরে বা খুব কাছাকাছি বসবেন না

ডিভাইস থেকে মোটামুটি কিছুটা দূরত্বে বসুন। চেয়ার সেটআপের সময় নিশ্চিত হন যে, স্ক্রিনে আপনাকে খুব ছোট বা খুব বড় দেখাচ্ছে না। ভিডিও ফ্রেমে ঠিকঠাক নিশ্চিত করতে আপনার মাথার ওপরের পর্দায় কিছু খালি জায়গা আছে, কাঁধ এবং বুক দেখা যাচ্ছে।

সর্বোপরি ইন্টারভিউদাতার সাথে যুক্ত থাকুন

আপনি কি কখনো এমন কারো সাথে কথা বলেছেন, যাকে মনে হয়েছে সে আপনার কাঁধের দিকে তাকিয়ে আছে অথবা পুরোপুরি আপনার কাছ থেকে দূরে আছে? এমন নয়। যদি এমনটা হয়ে থাকে তবে মনে হবে আপনি ঐ লোকটার সাথে যুক্ত নন। সেজন্য ভিডিও সাক্ষাৎকারে চোখে চোখ রেখে সম্ভব না হলেও যতটা সম্ভব কাছাকাছি যেতে চাইবেন। যেন মনে হয়, আপনি তাদের মুখের দিকে তাকিয়ে আছেন, শুনছেন এবং সর্বোপরি তাদের সাথে যুক্ত আছেন।

কেমন শোনাচ্ছেন সে দিকে মনোযোগ দিন

মানুষ সাধারণত ভিডিও সাক্ষাৎকারে তাদের চেহারা নিয়ে উদ্বিগ্ন থাকে। কিন্তু কি উত্তর দিচ্ছে বা শোনাচ্ছে তা নিয়ে চিন্তা করতে ভুলে যায়। অনুশীলনের সময় লক্ষ করুন কত দ্রুত কথা বলছেন, কথার মাঝে কীভাবে থামছেন, কণ্ঠস্বরের সুর কেমন হচ্ছে। যখন এগুলোতে ঘাটতি থাকবে তখন আপনাকে বুঝতে বা শুনতে কষ্ট হয়ে যাবে। তাই যে-কোন সাক্ষাৎকারে স্বাভাবিক গতিতে কথা বলুন। ডিভাইসের মাধ্যমে ইন্টারভিউ নিচ্ছে তার মানে এই নয় যে, আপনি যেভাবে ইচ্ছে শোনাতে পারেন। ভিডিও সাক্ষাৎকারে যেহেতু শরীরী ভাষা কম রয়েছে, সেহেতু আপনার কথা বলার উপায়ে সেই ঘাটতি মিটাতে হবে।

ছোট আকারে নোট লিখুন

ইন্টারভিউ যেহেতু আপনার ডেস্কে সেই সুবাদে ছোট আকারে কিছু নোট লিখে নিতে পারেন। কারণ ভিডিও ইন্টারভিউয়ের জন্য প্রচুর তথ্য থাকা জরুরি। কিন্তু সাবধানে থাকাই শ্রেয়। সামান্য কয়েকটি ছোট নোট রাখতে পারেন এবং সিম্পলভাবে দেখে নিতে পারেন। পয়েন্ট আকারে, সম্পূর্ণ ব্যাখ্যা নয়। অবশ্যই খেয়াল রাখুন আপনি যা বলছেন তা যেন রিডিং পড়ছেন সেরকম মনে না হয়।

সাক্ষাৎকারের সময় পাশে কেউ নয়

বিঘ্নিত হওয়ার হাত থেকে বাঁচতে সর্বাত্মক রেড অ্যালার্ট জারি করুন। এমন একটি রুম বেছে নিন যেখানে দরজা বন্ধ করতে পারেন। বাসার সবাইকে বলে দিন সাক্ষাৎকারের সময় যেন তারা বিরক্ত না করে। বিশেষ করে ঘরের ছোটরা। পাশের রুমে শিশু বা পোষাপ্রাণী (কুকুর) যদি থাকে যা চিৎকার, ঘেউ ঘেউ শুরু করতে পারে; প্রয়োজনে সাক্ষাৎকারগ্রহণকারীকে সেই সম্ভাবনা সম্পর্কে অবগত করতে পারেন।

জানাতে ভুলবেন না

যদি কোনো কিছু (মাইক্রোফোন, ডিভাইস, লাইট ইত্যাদি) বন্ধ হয়ে যায় তাহলে বলতে ভয় পাবেন না। যদি সাক্ষাৎকারগ্রহণকারীকে ভালোভাবে শুনতে বা দেখতে না পান, তবে সেটাও বলুন। তাহলে প্রমাণ করবে যে, আপনি কথা বলতে ইচ্ছুক এবং ইন্টারভিউয়ে সক্রিয় আছেন।

আচরণ বজায় রাখুন

যেহেতু আপনি বাড়িতে আছেন, একটু বেশি শিথিল হওয়া স্বাভাবিক। ইন্টারভিউয়ের টেবিলে বসে কখনোই চেয়ার টানবেন না, দাঁড়াবেন না, ডিভাইসের কিনারায় যাবেন না, বিছানায় বসবেন না, মাটিতে বসবেন না; এমনকি টেবিলের ওপর হাতে ভর দিয়ে রাখবেন না। এমনটা হলে ক্যামেরায় আপনাকে বার বার নড়াচড়া, কাঁপাকাঁপি বোঝাবে, যা বিরক্তকর হতে পারে।

কথা বলা শেষ করতে দিন

ভিডিওকলের মাধ্যমে খুব শীঘ্রই আপনার প্রতিক্রিয়া দেওয়া উচিত নয়। তাতে অন্যজনের কথা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনকি আপনাকে অভদ্র মনে হতে পারে। এজন্য অন্য ব্যক্তি কথা বলার সময় নিজেকে মিউট রাখার অভ্যাস করুন। এতে কথা বলার জন্য প্রস্তুতি নিতে অতিরিক্ত সময় পাবেন।

উত্তর শেষ হলে সংকেত

আপনার উত্তর শেষ হলে ইঙ্গিত দিতে পারেন। মাথা নাড়ানোর মতো সংকেত দিতে পারেন। এতে আপনার উত্তর দৃঢ়ভাবে শেষ করতে পারবেন। আর তাতে ইন্টারভিউয়ারেরও প্রশ্ন করতে সহজ হবে। উত্তর শেষে যদি চুপ করে দীর্ঘ সময় নীরব থাকেন সাক্ষাৎকারগ্রহণকারী অস্বস্তিতে পড়বেন, উত্তর শেষ হয়েছে কি না তা নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগবেন।

সাক্ষাৎকারটি শুধু প্রশ্ন-উত্তর, প্রশ্ন-উত্তরের মতো করে যেন না হয়। সাক্ষাৎকারগ্রহণকারী আপনার উত্তরে যদি সাড়া দেন, তখন যদি আপনার আরো কিছু বলার থাকে তাহলে বলতে ভুলবেন না। নিজেকে এমনভাবে উপস্থাপন করুন যাতে ইন্টারভিউয়ার আপনার সাথে স্বাচ্ছন্দ্যে প্রতিদিন কথা বলতে পারেন। এমন নয় যে শুধু প্রশ্নের উত্তরেই আটকে আছেন।

লেখক- সোহানা রহমান


বাংলাদেশের খবর

Plot-314/A, Road # 18, Block # E, Bashundhara R/A, Dhaka-1229, Bangladesh.

বার্তাবিভাগঃ newsbnel@gmail.com

অনলাইন বার্তাবিভাগঃ bk.online.bnel@gmail.com

ফোনঃ ৫৭১৬৪৬৮১