বাংলাদেশের খবর

আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২১

নিজস্ব ছন্দে অধরা


প্রতিটি মানুষের জীবনে একটি লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য থাকে। তারকারাও এর বাইরে নয়। তারপরেও অনেক তারকা আছেন যারা একবার টেলিভিশনের পর্দায় আবার সিনে পর্দায়, কখনো আবার উপস্থাপনাসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে যুক্ত হচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে একজন তারকার যে নিজস্বতা কিংবা স্বকীয়তা থাকে, তা অনেকটাই অপ্রকাশিত থেকে যায়। এর মূল কারণটিই হলো বাণিজ্যিক মনোভাব। তাই বলে এই স্রোতের বিপরীতে চলেন এমন তারকাও আছেন। তাদের মধ্যে একজন ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা অধরা খান।

চলচ্চিত্রই তার সব চিন্তাচেতনা- আলাপনের শুরুতেই সেটাই পরিষ্কার করলেন অধরা। জানালেন, ‘চলচ্চিত্র নিয়েই তার মূল ভাবনা। তিনি কখনোই চিন্তা করেননি টেলিভিশনে অভিনয় কিংবা উপস্থাপনা করবেন। বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন কাজ নিয়ে দৌড়ানোর পক্ষে তিনি নন। চলচ্চিত্র একটা বড় ক্ষেত্র বলে মনে করেন তিনি। যেখানে অভিনয়ের বিস্তর সুযোগ আছে। আর সে সুযোগটাই কাজে লাগাতে চান তিনি।

‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ দিয়ে অধরার যাত্রা শুরু হলেও তার মুক্তি পাওয়া প্রথম ছবি হলো ‘মাতাল’। এরপর মুক্তি পায় ‘নায়ক’। প্রথম ছবি মুক্তি না পেলেও অধরার অভিনেত্রী হওয়ার প্রচেষ্টা থেমে থাকেনি। শ্রম এবং মেধা দিয়ে ইতোমধ্যে চলচ্চিত্রে নিজের অবস্থান করে নিয়েছেন অধরা। একের পর এক ছবিতে কাজ করছেন। গেল মাসে মুক্তি পায় অধরা অভিনীত প্রথম ছবি। তাই তো অধরা বললেন, ‘প্রথম ছবি মুক্তির অপেক্ষায় দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। তবে প্রথম ছবি ঘিরে রয়েছে অন্যরকম ভালোবাসা। কত স্মৃতি জড়িয়ে আছে এই ছবি ঘিরে। প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলাম। বহুদিন ধরে অভিনেত্রী হওয়ার যে স্বপ্ন লালন করেছি সেই যাত্রা শুরু করেছিলাম এই ছবিটি দিয়ে। শেষ পর্যন্ত ছবিটি দর্শকরা দেখেছে। তাদের মতামত দিয়েছে। এটাই তো আমার পরম পাওয়া।’ বর্তমানে অধরার হাতে রয়েছে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রের কাজ। এরই মধ্যে শুরু করেছেন নিজের সাত নম্বর সিনেমার কাজ। সম্প্রতি শেষ করেছেন সৈকত নাসিরের ‘বর্ডার’ ছবির কাজ।

 

এ ছাড়া খুব শিগগির শুরু করবেন অপূর্ব রানার ‘গিভ অ্যান্ড টেক’ ও সৈয়দ অহিদুজ্জামানের ডায়ামন্ড ‘কোভিড-১৯ ইন বাংলাদেশ’। অন্যদিকে গত বছর থেকেই শোনা যাচ্ছিল, কলকাতার একটি বড় বাজেটের ছবিতে অভিনয় করবেন তিনি। গত বছরের জুন থেকে সেই ছবির শুটিং শুরুর কথা ছিল। অধরা বলেন, ‘এখনই এ বিষয়ে সব খোলাসা করতে চাই না। এতটুকুই বলি, একজন বড় পরিচালকের বড় বাজেটের কাজ এটি। কাজটির জন্য কলকাতায় একটি ফটোসেশনও হয়েছিল আমার। গত বছরের জুনে শুটিং শুরুর কথা ছিল। কোভিড-১৯-এর কারণে পিছিয়েছে। আশা করছি, এ বছরের জুলাই-আগস্ট নাগাদ কাজ শুরু হতে পারে।’ অধরা ভ্রমণপিয়াসী। নিজের ফেসবুকে তিনি রেখেছেন ‘ভ্যাকেশন অর হলিডে’ নামে একটি ফটো অ্যালবাম, যাতে ঢুঁ মারলেই দেখা যাবে তার ভ্রমণের ছবিগুলো। ভ্রমণের পাশাপাশি নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে যথেষ্ট সচেতন এই অভিনেত্রী। তাই তো এখনই বিয়ে নয়। তিনি বলেন, ‘বিয়ে! অনেক দেরি আছে। ঘর-সংসার করলে সিনেমায় অভিনয় করব না। আপাতত নিজের ক্যারিয়ারে  দিকেই সবচেয়ে বেশি নজর তার।’


বাংলাদেশের খবর

Plot-314/A, Road # 18, Block # E, Bashundhara R/A, Dhaka-1229, Bangladesh.

বার্তাবিভাগঃ newsbnel@gmail.com

অনলাইন বার্তাবিভাগঃ bk.online.bnel@gmail.com

ফোনঃ ৫৭১৬৪৬৮১