বাংলাদেশের খবর

আপডেট : ১৫ জুন ২০২২

১২ বছরেও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষকদের দাবি বাস্তবায়ন হয়নি


প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি ও নির্দেশনা থাকার পরেও দীর্ঘ ১২ বছরেও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের পেশাগত দাবি বাস্তবায়ন হয়নি। রাষ্ট্রের প্রধান নির্বাহীর সুস্পষ্ট ঘোষণা ও নির্দেশনা সত্বেও কারিগরি আমলাচক্রের কুটকৌশলে এক যুগ সময়ে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের ন্যায্য দাবি বাস্তবায়ন হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন না হওয়াটা রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল।

আজ বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সাগর রুনি মিলনায়তনে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবী সংগ্রাম পরিষদ আয়োজিত জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

নেতৃবৃন্দ উল্লেখ করেন যেখানে ন্যায্য দাবি বাস্তবায়ন হচ্ছে না সেখানে অব্যাহতভাবে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা ও পেশাজীবীদের নানান কালাকানুনের মাধ্যমে দাবিয়ে রাখার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এটি কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় দা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় ২০১১ সাল থেকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারগণ প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান, পদোন্নতির কোটা ৫০ শতাংশ এ উন্নীতকরণ, সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত সংস্থা, পেট্রোবাংলা কর্পোরেশন ও বিদ্যুৎ বিভাগের বিভিন্ন কোম্পানিতে ডিগ্রি ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার অনুপাত ১:৫ রেখে জনকল্যাণে অর্গানোগ্রাম প্রণয়ন, সকল বিদ্যুৎ কোম্পানিতে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি প্রদানে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি এবং পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও টিভিইটি প্রতিষ্ঠানসসমূহের শিক্ষক স্বল্পতা, শ্রেণীকক্ষ, ল্যাব, ওয়ার্কসপ সংকটসহ শিক্ষকদের পদোন্নতি ও ঝঞঊচ প্রকল্পের শিক্ষকদের নিয়মিতকরণ, বেতন ভাতা প্রদান এবং ছাত্র ছাত্রীদের বৃত্তি ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং ভাতা বৃদ্ধিসহ ২৯টি ইমার্জিং টেকনোলজির বেকার ডিপ্লোমা গ্রাজুয়েটদের কর্মসংস্থানের প্রয়োজনীয় নির্দেশনার দাবি জানিয়ে আসছে। অথচ, এর কোনটিই বাস্তবায়ন হয় নাই। উপরন্তু বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড ২০২০ এর সংজ্ঞা ও বিভিন্ন ধারা/উপধারায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের অবমূল্যায়ন ও অধিকার হরণ করা হয়েছে। অন্যদিকে চলমান ৪ বছরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সের মেয়াদ হ্রাস করে ৩ বছরে রূপান্তরের আত্মঘাতি ষড়যন্ত্র অব্যাহত রয়েছে। যা সারা দেশের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষক পেশাজীবীদের সংক্ষুব্ধ করে তুলেছে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে ১৯-২৪ জুন সংসদ সদস্যদের নিকট পত্র প্রেরণ ও মতবিনিময়, ২৬ জুন থেকে ২ জুলাই দাবি বাস্তবায়নে সহযোগিতা চেয়ে মন্ত্রিপরিষদ সদস্য ও মন্ত্র¿ণালয়ের সচিববৃন্দের নিকট পত্র প্রেরণ ও মতবিনিময়, ১৫-৩১ জুলাই সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে বাকাছাপ নেতৃবৃন্দ এবং ছাত্র ও শিক্ষকদের সাথে জেলা আইডিইবির প্রতিনিধি ও জেলা সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় ও প্রতিবাদ সমাবেশ, ২৫ জুলাই সর্বস্তরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষকদের অংশগ্রহণে জেলা ও বিভাগীয় শহীদ মিনারে/ শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে দাবি দিবস পালন, ২৬ জুলাই সর্বস্তরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র শিক্ষকদের অংশগ্রহণে ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দাবি দিবস পালন, ১-৩০ আগস্ট প্রত্যেক সার্ভিস এসোসিয়েশনের উদ্যোগে শোকাবহ আগস্টের উপর আলোচনা ও মতবিনিময় সভা এবং প্রত্যেক জেলায় সুধীজন, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক ও বুদ্ধিজীবীদের অংশগ্রহণে জেলা শাখার উদ্যোগে শোকাবহ আগস্টের আলোচনা ও মতবিনিময় সভা, ৪ সেপ্টেম্বর ঢাকায় মহাসমাবেশ ও প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সদস্য সচিব মির্জা এ টি এম গোলাম মোস্তফা। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন সংগঠনের আহ্বায়ক মোঃ ফজলুর রহমান খান ও আইডিইবি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামসুর রহমান। অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি জহুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জিএম আক্তার, বাংলাদেশ কারিগরি ছাত্র পরিষদের সভাপতি মেহেদী হাসান, সহ-সভাপতি শাহরিয়ার শাকিল ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম মোল্লা প্রমুখ।


বাংলাদেশের খবর

Plot-314/A, Road # 18, Block # E, Bashundhara R/A, Dhaka-1229, Bangladesh.

বার্তাবিভাগঃ newsbnel@gmail.com

অনলাইন বার্তাবিভাগঃ bk.online.bnel@gmail.com

ফোনঃ ৫৭১৬৪৬৮১