• রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
ঢাকাকে হারিয়ে শুভ সূচনা খুলনার

সংগৃহীত ছবি

বিপিএল

ঢাকাকে হারিয়ে শুভ সূচনা খুলনার

  • বাসস
  • প্রকাশিত ২১ জানুয়ারি ২০২২

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অষ্টম আসরে শুভ সূচনা করলো মুশফিকুর রহিমের খুলনা টাইগার্স। আজ টুর্নামেন্টের ও দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খুলনা ৫ উইকেটে হারিয়েছে মাহমুদুল্লাহ-তামিমের ঢাকাকে। 

আজ শুরু হওয়া বিপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮৩ রান করে ঢাকা। জবাবে ১ ওভার বাকী রেখে ৫ উইকেটে ১৮৬ রান করে জয়ের স্বাদ নেয় খুলনা।  

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্বান্ত নেন খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক

মুশফিকুর রহিম। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগান মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার দুই ওপেনার আফগানিস্তানের মোহাম্মদ শাহজাদ ও তামিম ইকবাল। পাওয়ার প্লেতে ৫৬ রান তোলেন  তামিম-শাহজাদ। 

নবম ওভারে ভাঙ্গে তামিম-শাহজাদ জুটি। রান আউটের ফাঁদে পড়ার আগে  ২৭ বলে ৮টি চারে ৪২ রান করেন শাহজাদ। 

ফরহাদ রেজার ১১তম ওভারে তিনটি চারে হাফ-সেঞ্চুরির হাকিয়ে ৪১ বলে হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন তামিম। হাফ-সেঞ্চুরি পাবার পরপরই আউট হন তামিম। ৪২ বলে ৭টি চারে ৫০ রান করেন তিনি। 

এরপর মোহাম্মদ নাইম ৯ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে রাসেল ৭ রানে আউট হলেও অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদেও ঝড়ো গতিতে  ৩৯ রানের সুবাদে বড় সংগ্রহ পায় ঢাকা। ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮৩ রান করে ঢাকা। মাহমুদুল্লাহ ২০ বলের ইনিংসে ২টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন। খুলনার কামরুল ইসলাম ৪৫ রানে ৩ উইকেট নেন। 

জয়ের জন্য ১৮৪ রানের জবাবে শুরুটা ভালো করতে পারেনি খুলনা। দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার তানজিদ হাসানকে ২ রানে বোল্ড করেন ঢাকার স্পিনার শুভাগত হোম। 

দ্বিতীয় উইকেটে ঢাকার বোলারদের উপর চড়াও হয়ে খেলেন আরেক ওপেনার ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে ফ্লেচার ও রনি তালুকদার। ৪০ বলে ৭২ রান যোগ করেন তারা। ফ্লেচার ৪৫ রানে থামলেও হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন রনি। ফ্লেচার ২৩ বল খেলে ৭টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। 
অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ৬, ইয়াসির আলি ১৩ রানে থামেন। তবে এক প্রান্ত আগলে দলকে লড়াইয়ে রাখেন রনি। ১৫তম ওভারে আউট হওয়ার আগে ৪২ বল খেলে ৭টি চার ও ১টি ছক্কায় ৬১ রানের ইনিংসটি সাজান রনি।

তবে ১৫তম ওভারে উইকেটে এসে ঝড়ো ইনিংস খেলে খুলনার জয় নিশ্চিত করেন শ্রীলংকার থিসারা পেরেরা। ১৮ বলে ৬টি চারে অনবদ্য ৩৬ রান করেন পেরেরা। ৫ বলে ১২ রানে অপরাজিত থাকেন মাহেদি হাসান। ছক্কা মেরে দলকে জয়ে বন্দরে নেন মাহেদি। ঢাকার রাসেল-এবাদত ২টি করে উইকেট নেন। 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads