• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
মিশরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ৭৫ নেতার মৃত্যুদণ্ড

মিশরে ৭৫ মুসলিম ব্রাদারহুড নেতার মৃত্যুদণ্ড

ছবি : ইন্টারনেট

আফ্রিকা

মিশরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ৭৫ নেতার মৃত্যুদণ্ড

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মিশরে ২০১৩ সালের ক্ষমতাচ্যুত ব্রাদারহুড নেতা মুরসির সমর্থকরা সেনা সমর্থিত সরকারে বিরুদ্ধে আন্দোলনে সহিংসতার দায়ে ৭৫ জন মুসলিম ব্রাদারহুড নেতার মৃত্যুদণ্ড ও ৪৭ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। এছাড়াও সহিংসতার ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে প্রায় সাতশ জনের সাজার রায় দিয়েছে আদালত। এই রায়ে মুসলিম ব্রাদারহুডের সিনিয়র নেতা এসাম এল-এরিয়ান ও মোহামেদ বেলতাগিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। খবর বিবিসির

বিবিসি জানিয়েছে, ২০১৩ সালের ওই ঘটনায় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে শত শত বিক্ষোভকারী প্রাণ হারালেও শনিবার দেয়া আদালতের রায়ে নিরাপত্তাবাহিনীর কোনও সদস্যের বিরুদ্ধে সাজা ঘোষিত হয়নি। সেজন্য মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারনেশনালের পক্ষ থেকে এ রায়কে বিচারের নামে ’প্রহসন’ বলে আখ্যা দেয়া হয়েছে। এ বিচারকে মিশরের সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক বলেও দাবি করেন ওই সংস্থা।

রায়ে আরো বলা হয়, সাজা প্রাপ্তরা নিরাপত্তার বিঘ্ন ঘটিয়ে সহিংসতা ছড়ানোসহ হত্যা এবং অবৈধভাবে আন্দোলন গড়ে তোলার চেষ্টা করে।

২০১৩ সালের ওই আন্দোলনে প্রায় ৮০০ আন্দোলনকারী প্রাণ হারিয়েছিল। এমন অবস্থায় উল্টো বিক্ষোভকারীদের সাত’শ জনের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে দেশটির আদালত।

জেনারেল আব্দুল ফাত্তাহ আল সিসি মিসরের ক্ষমতা গ্রহণ করার পর থেকে বিরোধী মতের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে রূঢ় পদক্ষেপ নিয়ে চলছেন। নিষিদ্ধ সংগঠনের সদস্য হওয়া বা হামলার পরিকল্পনা করার মত অভিযোগে দেশটিতে বহু নাগরিকের মৃত্যুদণ্ড হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৪ আগস্ট কায়রোর রাবা আল-আদাউইয়া স্কয়ারে এক অবস্থান কর্মসূচিতে অভিযান চালায় পুলিশ। সেখানে কয়েক ঘণ্টার পুলিশি অভিযানে ৮০০’র বেশি মানুষ নিহত হয়। ওই ব্যক্তিরা মিশরের প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ও মুসলিম ব্রাদারহুডের নেতাকে উৎখাতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করছিলেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads