• শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১০ মাঘ ১৪২৬
ভয়হীন খেলতে হবে : আশরাফুল

বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল

সংগৃহীত ছবি

ক্রিকেট

ভয়হীন খেলতে হবে : আশরাফুল

  • স্পোর্টস রিপোর্টার
  • প্রকাশিত ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আগামীকাল শনিবারই মাঠে গড়াচ্ছে ‘উপমহাদেশের বিশ্বকাপ’ খ্যাত এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। ‘উপমহাদেশের বিশ্বকাপ’ বলার কারণ, এই আসরের দলগুলোর মধ্যে রয়েছে তিনটি বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন দল। গত তিন আসরের মধ্যে দুটির ফাইনাল খেলা বাংলাদেশ এবার শিরোপার স্বপ্ন দেখছে। সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলের মতে, শিরোপা জিততে হলে ভয়হীন খেলতে হবে মাশরাফিদের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে সীমিত ওভারের ফরম্যাটে সিরিজ জিতে ফেরা বাংলাদেশ দল হিসেবেও বেশ আত্মবিশ্বাসী। আশরাফুলও বলেছেন, এশিয়া কাপে বাংলাদেশের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য দলটাকে খেলতে হবে ভয়হীন ক্রিকেট। ওয়ানডে ফরম্যাট বলেই আশাবাদী তিনি। সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান জানিয়েছেন, তারও স্বপ্ন বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হবে।

জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) জন্য বুধবার ফিটনেস টেস্ট দিয়েছেন আশরাফুল। ঢাকা মেট্রোর হয়ে এনসিএল খেলবেন তিনি। ফিটনেসের কাজের পর মিরপুর স্টেডিয়ামের বিসিবি একাডেমি ভবনে এশিয়া কাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ‘এবার আমাদের সবার স্বপ্ন যে আমরা চ্যাম্পিয়ন হব। সেই জন্য ম্যাচ বাই ম্যাচ সবাই চেষ্টা করবে ভালো খেলার। সিনিয়ররা যদি ভালো ক্রিকেট খেলে আর জুনিয়ররা যদি ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারে, তাহলে আমি মনে করি ভালো সম্ভাবনা আছে।’

ওয়ানডেতে গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের ধারাবাহিকতাই আশা জোগাচ্ছে আশরাফুলকে। তিনি বলেছেন, ‘আমরা ওয়ানডেতে অসাধারণ ক্রিকেট খেলে আসছি শেষ চার-পাঁচ বছর ধরে। এই ফরম্যাটে আমরা চমৎকার দল। এশিয়া কাপে আমরা দুইবার ফাইনাল খেলেছি।’

বড় কিছু অর্জনের জন্য ভালো শুরু আবশ্যক। আশরাফুলের মতে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেছেন, ‘প্রথম ম্যাচটা খুব গুরুত্বপূর্ণ হবে আমাদের জন্য। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আমরা ছন্দটা যদি আমাদের পক্ষে নিতে পারি, তাহলে আমাদের জন্য আফগানিস্তানের ম্যাচ সহজ হবে। যদি আমরা না নিতে পারি তখন একটু কঠিন হয়ে যাবে।’

নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে ছাড়াই এশিয়া কাপ খেলবে ভারত। টুর্নামেন্টে পাকিস্তানকেই ফেভারিটের মর্যাদা দিচ্ছেন আশরাফুল। কারণ, হোম ভেন্যু হিসেবে আমিরাতে খেলার অভিজ্ঞতা তাদেরই বেশি। তিনি বলেছেন, ‘যেহেতু আরব আমিরাতে খেলা, পাকিস্তানের হোম কন্ডিশন, তাই পাকিস্তান এগিয়ে থাকবে। আর তারাও সম্প্রতি ভালো ক্রিকেট খেলে আসছে। অবশ্যই পাকিস্তান একটু এগিয়ে থাকবে। তারপরও ওয়ানডে ফরম্যাট। এখানে আমরাও চমৎকার খেলছি। আমার কাছে মনে হয় সবাই ১৯-২০ থাকবে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads