• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

স্বাস্থ্য

সাইকেল চালান সুস্থ থাকুন

  • প্রকাশিত ২৯ এপ্রিল ২০১৮

আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে সাইকেল চালানোর অভ্যাসটা যেন ভুলতেই বসেছি। একটু ভালোভাবে ভেবে দেখুন- শহুরে যান্ত্রিক সভ্যতার ব্যস্ততায়, যানজটের দুঃসহ যন্ত্রণা, যন্ত্রের ধোঁয়া আর শব্দদূষণের হাত থেকে আমাদের জীবনকে বাঁচাতে পারে বাইসাইকেল। গবেষণায় দেখা গেছে, যারা কর্মক্ষেত্রে সাইকেল চালিয়ে যাওয়া-আসা করেন তাদের মোটা হওয়ার সম্ভাবনা ৩৯ শতাংশ। অপরদিকে যারা গাড়িতে যাওয়া-আসা করেন তাদের মোটা হওয়ার সম্ভাবনা ৬১ শতাংশ। এতে করে সাইকেল চালানোর সুফলটা কিছুটা হলেও আঁচ করা যাচ্ছে। বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে নিয়মিত সাইকেল চালানো পেশিশক্তি গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখে এবং ঊরু, কাফ ও নিতম্ব সুগঠিত হয়।

সাইকেল চালানো একটি উত্তম ব্যায়াম এতে কোনো সন্দেহ নেই। এই বাহনটি সহজ, নিরাপদ, পরিবেশবান্ধব, কম খরচ, চালনায় সহজবোধ্য- সর্বোপরি শারীরিক শ্রমবান্ধব যা শরীরের জন্য খুবই উপকারী।

গবেষণা প্রতিবেদনের বিভিন্ন বিশ্লেষণ থেকে দেখা গেছে, ২০ কিলোমিটার গতিতে সাইকেল চালালে প্রতি ঘণ্টায় ৫০০ থেকে ৫৫০ ক্যালরি শক্তি খরচ হয়। এভাবে এক সপ্তাহে ন্যূনতম ৩৫ কিলোমিটার পথ সাইকেলে অতিক্রম করলে ৫০ শতাংশেরও বেশি আশঙ্কা কমে যায় করোনারি হূদরোগের। এ ছাড়াও সাইকেল চালানোর আরো সুফল হলো- সাইকেল চালালে শরীর প্রচুর ঘামে। এই ঘামের সঙ্গে শরীরের বর্জ্য বের হয়ে ত্বক পরিষ্কার হয়, শরীর ও মন ফুরফুরে থাকে। নিয়মিত সাইকেল চালালে শরীরের বাড়তি ওজন কমে আসে। শরীর সুঠাম থাকে। তাছাড়াও সাইকেল চালানোর কারণে মুক্ত বাতাসে মনে প্রশান্তি আসে। মানসিক দুশ্চিন্তা কমে। অতএব সাইকেল হোক আমাদের প্রিয় পরিবেশবান্ধব বাহন।

ফয়জুন্নেসা মণি

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads