• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
দেশে উৎপাদন হচ্ছে ২৫ হাজার কোটি টাকার প্লাস্টিক পণ্য

প্লাস্টিকের রফতানির বাজার দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার

সংরক্ষিত ছবি

শিল্প

দেশে উৎপাদন হচ্ছে ২৫ হাজার কোটি টাকার প্লাস্টিক পণ্য

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৯ জুলাই ২০১৮

দেশে অভ্যন্তরীণ প্লাস্টিকের পণ্যের বাজার এখন ২৫ হাজার কোটি টাকার। দেশে ছোটবড় মিলিয়ে বর্তমানে প্রায় ৫ হাজারের বেশি প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রি গড়ে উঠেছে। আর এ বাজার ধরতে ২০ হাজার ৫৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ হয়েছে। বাংলাদেশ প্লাস্টিক দ্রব্য প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজিএমইএ) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বিপিজিএমইএ বলছে, দেশে এখন ক্ষুদ্র সাড়ে ৩ হাজার, মাঝারি ১ হাজার ৪৮০ ও বৃহৎ ৫০টি প্লাস্টিক কারখানা রয়েছে। এ খাতের ওপর প্রায় ১২ লাখের বেশি মানুষ নির্ভরশীল। এ ছাড়া প্লাস্টিকের রফতানির বাজার দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার।

বিপিজিএমইএ সভাপতি জসিম উদ্দিন জানান, বাংলাদেশ থেকে বিগত ২০০৩-০৪ অর্থবছরে সামগ্রিক প্লাস্টিক রফতানি হয়েছিল ১০৭ দশমিক ২৯ মিলিয়ন ইউএস ডলার, যা গত অর্থবছর (২০১৬-১৭) এসে দাঁড়িয়েছে ৬০৭ দশমিক ১৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার। উল্লিখিত বছর সরাসরি রফতানির পরিমাণ ছিল ১১৬ দশমিক ৯৫ মিলিয়ন এবং প্রচ্ছন্ন রফতানির পরিমাণ ছিল ৪৯০ দশমিক ২০ মিলিয়ন ডলার।

তিনি জানান, ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে প্লাস্টিক খাতের সরাসরি রফতানি টার্গেট ছিল ৯৩ দশমিক ৫০ মিলিয়ন ডলার। আর অর্জিত হয়েছে ১১৬ দশমিক ৯৫ মিলিয়ন ডলার। অর্থাৎ এ অর্থবছরে  টার্গেট থেকে  প্রায় ২৫ দশমিক ০৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। ফলে দেশের অন্যান্য সেক্টর থেকে এ বছরে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে প্লাস্টিক খাতে।

বিশ্ববাজারের চাহিদার প্রায় সব ধরনের প্লাস্টিকসামগ্রী এখন বাংলাদেশে তৈরি হচ্ছে। জগ, মগ থেকে শুরু করে জীবনরক্ষাকারী ওষুধের প্যাকেট, ইনজেকশন সিরিঞ্জ, রক্ত সংগ্রহের ব্যাগ, চোখের মণি, ক্রোকারিজ, ঘরের দরজা, জানালা, সেনেটারি, ইলেকট্রিক দ্রব্যাদি, কম্পিউটার, টেলিফোন সেট, বিভিন্ন ধরনের খেলনা ইত্যাদির ব্যবহার প্রচুর পরিমাণে রয়েছে।

প্লাস্টিক পণ্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত বিভিন্ন দেশসহ সমগ্র ইউরোপ এবং এশিয়ার বিভিন্ন দেশ যেমন চীন, ভারত, নেপালসহ অন্যান্য বাজারে রফতানি হচ্ছে। প্লাস্টিক ব্যবহারের পরিমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে ২০ শতাংশ হারে। মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল (এমডিজি) অর্জন এবং আগামী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকারের লক্ষ্য ৭ থেকে ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জনে প্লাস্টিক সেক্টর যথাযথ ভূমিকা পালন করবে।

দেশে বর্তমানে প্রতিটি মানুষ গড়ে ৫ কেজির মতো প্লাস্টিক ব্যবহার হচ্ছে। অথচ উন্নত দেশগুলোতে প্লাস্টিক ব্যবহারের পরিমাণ প্রায় ৮০ থেকে ১০০ কেজি।  দেশে প্লাস্টিকের ব্যবহার অনেক বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমানে যে হারে প্লাস্টিকের ব্যবহার বাড়ছে এতে ২০৩০ সালে এটি ৩৪ কেজি পর্যন্ত উঠতে পারে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads