• বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫
ads
পুলিশের দাদাগিরিতে পণ্ড শিক্ষকদের কর্মসূচি

নন-এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গতকাল কর্মসূচি পালনের জন্য জড়ো হলে পুলিশের বাধায় তা ভন্ডুল হয়ে যায়

ছবি - বাংলাদেশের খবর

জাতীয়

পুলিশের দাদাগিরিতে পণ্ড শিক্ষকদের কর্মসূচি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১১ জুন ২০১৮

এমপিওভুক্তির দাবিতে গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনে জড়ো হয়েছিলেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। কিন্তু কর্মসূচির ঘোষিত সময়ের আগেই প্রেস ক্লাবের সামনের ফুটপাথ দখলে নেয় পুলিশ। সাড়ে ৯টায় জড়ো হওয়া মাত্র শিক্ষকদের ধাওয়া দিয়ে পল্টনে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ। পুলিশের দাদাগিরিতে নিরাপদ আশ্রয় খুঁজতে থাকা শিক্ষকরা এরপর আর সারাদিনেও প্রেস ক্লাবের সামনে বসতে পারেননি।

সকাল ১০টার দিকে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী (ডলার) এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায়কে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়। প্রায় দুই ঘণ্টা এই দুই শিক্ষক নেতাকে রাজধানীর বঙ্গবাজারের পাশে এক জায়গায় বসিয়ে রাখে। ঈদের আগে রাজপথে কোনো আন্দোলন না করে বাড়ি ফিরে যাওয়ার শর্তে আটক দুই নন-এমপিও শিক্ষক নেতাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

মুক্ত হওয়ার পর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আসেন দুই নেতা। এ সময় প্রেস ক্লাবের উল্টো দিকে বিএম ভবনের সামনে জড়ো হওয়া শিক্ষকরা দুই নেতাকে কাছে পেয়ে স্লোগান তোলেন, ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু,’ ‘এক দফা এক দাবি-এমপিও দিতি হবি’, ‘শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি-এমপিও দিতি হবি’, ‘পুলিশের জুলুম চলবে না-এমপিও না নিয়ে ঘরে ফিরব না’।  দুপুর ২টার দিকে শিক্ষকরা ফের প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করলেও পুলিশের ধাওয়ার কারণে কর্মসূচি পালন করতে পারেননি। পরে শিক্ষকরা আজ সোমবার ফের প্রেস ক্লাবের সামনে বসবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন।

নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার গতকাল সন্ধ্যায় বাংলাদেশের খবরকে বলেন, রমজানে রাজপথে জমায়েত না করে আমাদের বাড়ি চলে যেতে অনুরোধ করছে পুলিশ। কিন্তু আমরা জানিয়েছি আমরা শিক্ষক। শান্তিপূর্ণভাবেই আমরা কর্মসূচি পালন করব। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এমপিও ছাড়া বাড়ি ফিরে যাব না। কিন্তু পুলিশ তো বলছে, ঈদের আগে প্রেস ক্লাবের সামনে বসতে পারবেন না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রোববার বিকালে পুলিশের ঢাকা (দক্ষিণ) ডিসির কাছে সোমবার অবস্থান কর্মসূচি পালনের জন্য আবেদন নিয়ে গিয়েছিলাম। সম্মতি মেলেনি। বাধা দিলেও আজ সোমবার আমরা আবার প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের চেষ্টা করব।

নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ড. বিনয় ভূষণ রায় বলেন, গত বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে উপস্থাপিত বাজেটে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির বিষয়ে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব না থাকায় হতাশ হয়ে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন এ কর্মসূচি পালন করছে। তিনি বলেন, এমপিওভুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি থাকলেও প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে সুনির্দিষ্ট কোনো অর্থ বরাদ্দ না থাকায় আমরা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট শুরু করেছি।

নন-এমপিও শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বলেছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আজ সোমবার থেকে লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। আন্দোলনে অংশ নেওয়া নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আমাদের পিছিয়ে যাওয়ার সুযোগ নেই। রাজপথে আবারো নেমেছি দাবি আদায় করে ঘরে ফিরব। এজন্য আজ সোমবার সকাল ৯টায় সকলে মিলে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমবেত হবেন। পুলিশ বাধা দিলে তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবেন।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নতুন এমপিও প্রস্তাবনা না থাকায় ফের আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা। কর্মসূচি অনুযায়ী গতকাল রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনে তারা সমবেত হয়েছেন। তবে পুলিশি বাধায় তারা কর্মসূচি পালন করতে পারেননি। এ রকম পরিস্থিতিতে আজ আবার তারা সেই প্রেস ক্লাবের সামনেই কর্মসূচি পালনের জন্য মাঠে নামবেন। পুলিশ বলছে অন্য কথা।

রিলেটেড সংবাদ:

  1. পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads