• মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
রোহিঙ্গা শিবির উন্নয়নে এডিবির সহায়তা ১০ কোটি ডলার

রোহিঙ্গা শিবির

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

রোহিঙ্গা শিবির উন্নয়নে এডিবির সহায়তা ১০ কোটি ডলার

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৭ জুলাই ২০১৮

রোহিঙ্গাদের শিবির উন্নয়নে বাংলাদেশকে ২০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। প্রথম দফায় এর মধ্যে ১০ কোটি ডলার সহায়তার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সংস্থার বোর্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ৮০০ কোটি টাকা। এডিবির বাংলাদেশ আবাসিক মিশন দফতর থেকে গতকাল শুক্রবার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মিয়ানমারে সংঘাতের মুখে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের মৌলিক  প্রাথমিক অবকাঠামো ও মৌলিক সেবা নিশ্চিত করতে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। অনুদান হিসেবে প্রতিশ্রুত এ অর্থ সরকারকে পরিশোধ করতে হবে না।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এডিবি বলেছে, ২০১৭ সালের আগস্টের শেষ পর্যন্ত মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের সীমান্ত পেরিয়ে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এর ফলে কক্সবাজারের স্থানীয় অবকাঠামোর ওপর বিভিন্ন ধরনের চাপ পড়েছে। রোহিঙ্গা স্রোতের কারণে স্থানীয় পর্যায়ে অর্থনীতিও চাপে রয়েছে। রোহিঙ্গা সঙ্কটে মানবিক বিপর্যয়ও ঘটছে।

এতে আরো বলা হয়, কক্সবাজারের ৩২ ক্যাম্পে রোহিঙ্গারা বাস করছে। তাদের আশ্রয়, খাদ্য, পয়ঃনিষ্কাশন, নিরাপদ পানি, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য মৌলিক সেবা নিশ্চিত করা দৈনন্দিন চ্যালেঞ্জে পরিণত হয়েছে। এ বিষয়ে দ্রুত উদ্যোগ না নেওয়া হলে পরিস্থিতির আরো অবনতি হবে বলে আশঙ্কা করছে এডিবি।

অনুদান প্রস্তাব অনুমোদন দিয়ে সংস্থার প্রেসিডেন্ট তাকেহিকো নাকাও এক বিবৃতিতে বলেন, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা সঙ্কট মোকাবেলায় এডিবি বিশ্বব্যাংকসহ অন্যান্য উন্নয়ন সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে। আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের জন্য বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণে সরকারকে সহায়তা দেবে এডিবি।

সংস্থা জানায়, গত মে মাসে এডিবির প্রেসিডেন্টের কাছে রোহিঙ্গাদের জন্য অনুদান চেয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। জরুরি বিবেচনায় অভাবনীয় গতিতে অনুদান অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রথম দফায় এডিবির ১০ কোটি ডলার সহায়তায় টেকনাফ ও উখিয়া উপজেলায় রোহিঙ্গাদের জন্য পানি, জ্বালানি, যোগাযোগ ও দুর্যোগ মোকাবেলায় অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে।

জাতিসংঘের নেতৃত্বে আন্তঃখাত সমন্বয় গ্রুপের প্রণীত জয়েন্ট রেসপন্স প্ল্যানের আওতায় এ অর্থ দিচ্ছে এডিবি। জাতিসংঘের বিভিন্ন অঙ্গ সংস্থা, বিশ্বব্যাংক ও রোহিঙ্গা শিবিরে বিভিন্ন ধরনের সহায়তা দিয়ে আসা সংস্থাগুলো যৌথভাবে এ বিষয়ে প্রকল্প তৈরি করেছে। প্রকল্প বাস্তবায়নেও থাকবে এসব সংস্থা।

প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে ব্যয় ধরা হয়েছে ১২ কোটি টাকা। এতে ২ কোটি ডলার ব্যয় হবে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে। প্রথম পর্যায়ে বাস্তবায়নের ভিত্তিতে প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায় হাতে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে এডিবি। দ্বিতীয় পর্যায়েও ১০ কোটি ডলার দেবে সংস্থাটি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads