• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
ads
তবুও মাথা নোয়াবার নয়

বাংলাদেশের খবরের ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

গ্রাফিক্স : বাংলাদেশের খবর

সংবাদ-ভাষ্য

তবুও মাথা নোয়াবার নয়

  • আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া
  • প্রকাশিত ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

সৌরভে গৌরবে আমরা পেরিয়ে এসেছি তিনটি বছর। বাংলাদেশের খবর আজ চতুর্থ বছরে পা দিয়েছে। আমাদের এই দীর্ঘ পথচলা সব সময়ই কুসুমাস্তীর্ণ ছিল না। কোনো কোনো সময় আমাদের অতিক্রম করতে হয়েছে শ্বাপদসঙ্কুল, কণ্টকাকীর্ণ পথ। কবিগুরুর দীক্ষা- সত্য যে কঠিন। আমরা সেই কঠিনকেই ভালোবেসেছি। সত্যের প্রশ্নে আপস করিনি, মাথানত করিনি। শুরুতেই অঙ্গীকার করেছিলাম আমরা হব বস্তুনিষ্ঠতায় অকুতোভয়। তবে অন্তত চারটি মৌলিক প্রশ্নে আমাদের থাকবে কঠিন পক্ষপাতিত্ব ও বিনম্র শ্রদ্ধা। এক. প্রিয় মাতৃভূমির স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব; দুই. মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও প্রেরণা; তিন. ৩০ লাখ শহীদের সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ এবং চার. সুখী-সমৃদ্ধ ও শোষণমুক্ত সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা। একই সঙ্গে আমরা অনড়-অনমনীয় থাকব আমাদের গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় বিষয়গুলোর ওপর। আমাদের লেখনী সোচ্চার থাকবে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ও মুক্তচিন্তা বিকাশের স্বার্থে। আমরা অবিচল থাকব গণতান্ত্রিক ও অসাম্প্রদায়িক সমাজ বিনির্মাণে, অটল থাকব সব কূপমণ্ডূকতা, সন্ত্রাসবাদ ও অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে।

বাংলাদেশের খবরের সম্পাদক আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া

 

আমাদের চতুর্থ বর্ষটি থাকবে ঘটনাবহুল। এ বছরই হবে জাতীয় নির্বাচন। এর মাধ্যমে সিদ্ধান্ত হবে আমাদের আকাশছোঁয়া অহঙ্কার ও গৌরবময় ইতিহাস কোন পথে অগ্রসর হবে। আমরা দ্রুতগতিতে অগ্রসর হব সামনের সোনালি দিনের পথে; না অশুভ শক্তির রাহুগ্রাসে আমাদের জাতীয় ইতিহাস, ঐতিহ্য ও চেতনা মুখ থুবড়ে পড়বে। আমরা আমাদের লেখনী নিয়ে ইতিহাসের চাকাকে সেই স্বর্ণশিখরে নিয়ে যেতে চাই; যার জন্য মহান মুক্তিযুদ্ধে আমাদের ৩০ লাখ তাজা প্রাণ ঝরে গিয়েছিল, দুই লাখ মা-বোনের পবিত্রতা নষ্ট হয়েছিল। আমাদের আছে তারুণ্যে ভরপুর একঝাঁক উদীয়মান সংবাদকর্মী, আছে অভিজ্ঞ ও প্রবীণ সাংবাদিকরা। আমাদের বিশ্বাস, নবীন-প্রবীণের মিশ্রণে গড়ে ওঠা ‘বাংলাদেশের খবর’ দ্রুত পাঠকনন্দিত হবে। আমাদের এই কঠিন পথচলায় আমরা কখনো একা নই। আমরা মওলানা আকরম খাঁ, তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া, জহুর হোসেন চৌধুরী, আবদুস সালাম, সিরাজুদ্দীন হোসেন, হামিদুর রহমান, কাজী মুহাম্মদ ইদ্রিস প্রমুখ নক্ষত্রের সফল উত্তরাধিকার। আমরা আমাদের সাংবাদিকতার মহান পেশার এই সকল বরেণ্য ব্যক্তিত্বের কাছ থেকে নিয়ত উৎসাহ, উদ্দীপনা ও প্রেরণা পাই।

আমাদের গর্বিত জাতি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দিকে অগ্রসরমাণ। এ লক্ষ্যে আমাদের ক্ষুরধার কলম নিরন্তর সচল থাকবে। আমরা আমাদের এই নতুন বর্ষে নতুন উদ্দীপনায়, নতুন অঙ্গীকার নিয়ে অগ্রসর হব। এ বিষয়ে আমরা সর্বদা থাকব সুস্থির ও দৃঢ়চিত্ত। আমাদের এই স্বপ্নিল পদযাত্রায় সহযাত্রী হওয়ার জন্য আমরা উদাত্ত আহ্বান জানাই আমাদের প্রিয় পাঠক, শুভানুধ্যায়ী, পৃষ্ঠপোষক ও আপামর দেশবাসীর প্রতি। সপ্ত আসমান থেকে অজস্র ধারায় আশীর্বাদ বর্ষিত হোক আমাদের সামনের পথচলার দিনগুলোতে।

  

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads