• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
ads
এই দিনে

ন্যাটো একটি সম্মিলিত প্রতিরক্ষা গোষ্ঠী

ইন্টারনেট

মতামত

এই দিনে

  • প্রকাশিত ৩১ মে ২০১৮

১৭৯০ : মার্কিন কপিরাইট আইন কার্যকর হয়।

১৮৮৭ : নোবেলজয়ী (১৯৬০) ফরাসি সাহিত্যিক স্যঁ জোঁ পেরসের জন্ম।

১৯১০ : ব্রিটিশ শাসনের আওতায় দক্ষিণ আফ্রিকার স্বায়ত্তশাসন লাভ।

১৯৩১ : বাহরাইনে আরব বিশ্বের প্রথম তেল আবিষ্কার।

১৯৪১ : জার্মানিতে গথিক হরফ নিষিদ্ধ এবং রোমান হরফ চালু।

১৯৮১ : পৃথিবীর কক্ষপথে ভারতের ‘রোহিনী-২’ উৎক্ষেপণ।

১৯৮৯ : প্রেসিডেন্ট গোল্ডকাপে দক্ষিণ কোরিয়াকে হারিয়ে বাংলাদেশের প্রথম আন্তর্জাতিক ফুটবল ট্রফি অর্জন।

১৯৯৫ : রাশিয়ার ন্যাটোর সদস্যপদ গ্রহণ।

 

ন্যাটো

উত্তর আটলান্টিক নিরাপত্তা জোট বা ন্যাটো (North Atlantic Treaty Organisation— NATO) ১৯৪৯ সালে গঠিত একটি সামরিক সহযোগিতার জোট। ন্যাটো জোটভুক্ত দেশগুলো পারস্পরিক সামরিক সহযোগিতা প্রদানে অঙ্গীকারবদ্ধ। আটলান্টিক মহাসাগরের দুই পাড়ে অবস্থিত উত্তর আমেরিকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা এবং ইউরোপের অধিকাংশ দেশ এই জোটের সদস্য। এ ছাড়া তুরস্কও এই জোটের অন্তর্ভুক্ত। ন্যাটো একটি সম্মিলিত প্রতিরক্ষা গোষ্ঠী। এর সদর দফতর বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে অবস্থিত। ন্যাটোর বর্তমান সদস্য-দেশের সংখ্যা ২৯। সর্বশেষ যোগ দেয় মন্টিনিগ্রো। ন্যাটোর সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর খরচ পৃথিবীর সব দেশের সামরিক খরচের প্রায় ৭০ ভাগ। প্রতিষ্ঠার প্রথম দুই বছর ন্যাটো একটি রাজনৈতিক সংগঠন হিসেবে ছিল। কিন্তু কোরিয়া যুদ্ধের পর ন্যাটো সদস্যরা চিন্তিত হয়ে পড়েন এবং যুক্তরাষ্ট্রের দুজন সর্বোচ্চ সামরিক কমান্ডারের অধীন একটি সমন্বিত সামরিক কাঠামো গড়ে তোলা হয়। ন্যাটোর প্রথম মহাসচিব ছিলেন লর্ড ইসমে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads