• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
টিম বার্নাস লি

টিম বার্নাস লি

ইন্টারনেট

মতামত

স্মরণ

টিম বার্নাস লি

  • প্রকাশিত ০৮ জুন ২০১৮

ইন্টারনেটে যেকোনো ওয়েবসাইটের শুরুতেই www লিখতে হয়। এটি হচ্ছে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের সংক্ষিপ্ত রূপ। বহুল ব্যবহূত এই তিনটি অক্ষরের জনক হচ্ছেন টিম বার্নার্স লি। ব্রিটিশ কম্পিউটার বিজ্ঞানী টিম বার্নার্স লি ১৯৫৫ সালের ৮ জুন লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। পদার্থবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করেন ইউনিভার্সিটি অব অক্সফোর্ডের দ্য কুইনস কলেজে। তিনি সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ইউরোপিয়ান অরগানাইজেশন ফর নিউক্লিয়ার রিসার্চে (সার্ন) ১৯৮০ সালের জুন থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন। ১৯৮৯ সালের মার্চে টিম বার্নাস লি পূর্ববর্তী হাইপারটেক্সট সিস্টেম থেকে ধারণা নিয়ে যে প্রস্তাবনা লেখেন তা থেকেই ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের যাত্রা শুরু। পরবর্তী সময়ে এই কাজে লি’র সঙ্গে যোগ দেন বেলজিয়ান বিজ্ঞানী রবার্ট কাইলিয়াউ। এ সময় তারা উভয়েই সার্নে কর্মরত ছিলেন। ১৯৯০ সালের ডিসেম্বরে প্রকাশিত এক প্রস্তাবনায় তারা উল্লেখ করেন, ‘হাইপারটেক্সটকে লিঙ্ক ও ওয়েব হতে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে একজন ব্যবহারকারী তার প্রয়োজন মতো ওয়েবে পরিভ্রমণ করতে পারবে।’ সেই থেকে শুরু করে টিম বার্নার্স লি ওয়েবের উন্নতিসাধনে ব্যাপক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। ওয়েবে ব্রাউজারের মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী টেক্সট, চিত্র, ভিডিও ও অন্যান্য মাল্টিমিডিয়াসমৃদ্ধ ওয়েবে পেইজ দেখতে পারে। সাধারণত ব্রাউজারে ইউআরএল টাইপ করে বা কোনো পাতা থেকে হাইপারলিঙ্ক অনুসরণ করে ওয়েব পেজে ঢোকার প্রক্রিয়া শুরু হয়। এরপরই ওয়েব পেজটি প্রদর্শিত হয়।

টিম ২০০৪ সালে ইউনিভার্সিটি অব সাউথহ্যাম্পটনের স্কুল অব ইলেকট্রনিকস অ্যান্ড কম্পিউটার সায়েন্সের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগে সভাপতি হিসেবে যোগ দেন। ২০০৯ সালের নভেম্বরে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব ফাউন্ডেশন চালু করেন তিনি। পরামর্শক হিসেবে যোগ দেন লন্ডনভিত্তিক স্টার্ট-আপ স্টেট কমে। ২০১২ সালের মে মাসে ওপেন ডাটা ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ২০১৩ সালে চালু করেন দ্য অ্যালায়েন্স ফর অ্যাফোডেবল ইন্টারনেট। এর ফলে পাবলিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে গুগল, ফেসবুক, ইন্টেল ও মাইক্রোসফটের মতো প্রাইভেট কোম্পানিগুলোও কম খরচে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছে। তিনি অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। ২০০৪ সালে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তাকে নাইট উপাধি দেন। ২০১৩ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের উদ্ভাবক হিসেবে সম্মানিত করা হয় তাকে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads