• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
ads
উদ্ভিজ্জ খাবার হতাশা কাটায়!

সংগৃহীত ছবি

শারীরিক বিজ্ঞান

উদ্ভিজ্জ খাবার হতাশা কাটায়!

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মানুষের মেধা গঠনে খাবারের ভূমিকার কথা নতুন করে বলার কিছুই নেই। লোকজ জ্ঞান কিংবা আধুনিক বিজ্ঞান সব জায়গায়ই শরীর ও মানস গঠনে খাবারের বিশেষ ভূমিকার কথা গুরুত্ব সহকারে আলোচিত। মনের অবস্থা বদলেও খাবারের বিশেষ ভূমিকার কথা সর্বজনবিদিত। তবে কোনো বিশেষ অঞ্চলের প্রতিদিনের খাবারেই যে মানসিক অবস্থার পরিবর্তনে বিশেষ ভূমিকা ছিল তা এতদিন অজানাই ছিল। কিন্তু লন্ডন ইউনিভার্সিটি কলেজের একদল গবেষক সম্প্রতি দাবি করেছেন, ভূমধ্যসাগর বেষ্টিত দেশগুলোর মানুষ প্রতিদিন যে খাবার খায় মানসিক চাপ বা হতাশা কাটানোর বিশেষ ক্ষমতা আছে তাতে।

ন্যাচার ডটকমের বরাতে বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ভূমধ্যসাগরীয় এলাকার দেশগুলোর খাবার মানুষের হতাশা হটাতে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে। গত আট বছর ধরে এ বিষয়ে প্রকাশিত প্রায় ৪১টি গবেষণা নিবন্ধ বিশ্লেষণ করে গবেষকরা করেছেন এমন দাবি। তারা বলছেন, অতিরিক্ত মাংস ও দুগ্ধজাত খাবারের পরিবর্তে সেই অঞ্চলের মানুষ প্রতিদিন যে ফল, সবজি, দানাদার শস্য, বাদাম, মাছ ও জলপাই তেলের খাবার খান সেগুলোই তাদের মুড বা মানস চাঙা রাখার ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখতে বিশেষ সহায়তা করে। অন্য কথায়, যারা খাদ্য তালিকায় দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার এবং মাংসের পরিমাণ কমিয়ে ফল, সবজি ও মাছের প্রাধান্য দেন তাদের মন তুলনামূলক বেশি সতেজ থাকে। তবে এই সিদ্ধান্তটিকে শতভাগ সিদ্ধ ধরতে আরো কিছু গবেষণা করা প্রয়োজন বলে মনে করেন গবেষকরা।

বিশ্লেষক দলের প্রধান ও লন্ডন ইউনিভার্সিটি কলেজের অধ্যাপক ড. ক্যামিলে ল্যাসালি বলেন, আমরা সবেমাত্র এ বিষয়ে কিছু ইঙ্গিত খুঁজে পেয়েছি। চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আরো গবেষণা হওয়া দরকার। তবে আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি, আপনার খাদ্য তালিকায় দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার এবং মাংসের পরিমাণ কমিয়ে ফল, সবজি ও মাছের প্রাধান্য দিলে আপনি মানসিকভাবে অনেক বেশি চাঙ্গা থাকতে পারবেন।

তবে এই গবেষণাকর্মের সঙ্গে যুক্ত না থেকেও ইউনিভার্সিটি অব গ্লাসগোর মেটাবলিক মেডিসিনের অধ্যাপক নাভিদ সাত্তার বলেন, উদ্ভিজ্জ খাবার অবশ্যই মানুষের শরীরের জন্য অনেক বেশি উপকারী। তবে এই খাবারও একবারে অনেক বেশি খেলে নানা জটিলতা তৈরি হতে পারে। তাছাড়া উদ্ভিজ্জ খাবার যে প্রাণিজ খাবারের চেয়ে বেশি স্বাস্থ্যসম্মত সেটা মোটা দাগে বলা গেলেও মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়ে বলার আগে আরো গবেষণা প্রয়োজন।

বিশ্বখ্যাত মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ স্টিফেন বাকলে বলেন, উদ্ভিজ্জ খাবার খাওয়ার পরামর্শ অবশ্যই আমি সমর্থন করি। তবে মানসিক স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য অতিরিক্তি চিনি, অ্যালকোহল, ক্যাফেইন জাতীয় খাবার বাদ দেওয়ার পরামর্শ দেব। একই সঙ্গে কিছু শারীরিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে যুক্ত রাখারও পরামর্শ দেব আমি। আর যদি কোনো কারণে মানসিক অশান্তিতে ভোগেন, তবে অবশ্যই আপনার পারিবারিক চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads