• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

স্মৃতি স্থানান্তরে সফলতা

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১৬ মে ২০১৮

মস্তিষ্কের তথ্য ধারণ করে রাখার প্রক্রিয়া কিংবা মস্তিষ্কে ধারণকৃত তথ্যই স্মৃতি নামে পরিচিত। এই প্রক্রিয়ায় প্রথমে তথ্য মস্তিষ্কে জমা হয় এবং দরকার অনুযায়ী সেই তথ্য আবার সামনে আসে। আবার অনেক তথ্য আপনাআপনি হারিয়ে যায়। আসলে কিছু তথ্য হারিয়ে যায় বলেই নতুন নতুন তথ্য বা স্মৃতি জমা হয় আমাদের মস্তিষ্কে।

তবে এই হারিয়ে যাওয়া স্মৃতি যদি মস্তিষ্কের বাইরে কোথাও সংরক্ষণ করা যেত বা কেউ মরে গেলে তার স্মৃতি যদি জীবিত রাখা যেত কেমন হতো?

এতদিন কেবল বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীতে সেটা সম্ভব হয়েছে। একজনের স্মৃতি আরেকজনের মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া বা কারো ব্রেন হ্যাক করে তার স্মৃতি চুরি করার ঘটনা সিনেমার পর্দায় হরহামেশাই দেখা গেছে। তবে বিজ্ঞানীরা সেই কল্পকাহিনীকেই বাস্তবে রূপ দিয়েছেন। প্রথমবারের মতো স্মৃতি স্থানান্তরে সক্ষম হয়েছেন তারা।

স্মৃতি স্থানান্তরের এই গবেষণাটি সম্প্রতি ই-নিউরো সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে। গবেষকদের আশা এই আবিষ্কার স্মৃতিজনিত শারীরিক গবেষণায় দিকনির্দেশনা দেবে।

একটি শামুকের রাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড (আরএনএ) অন্য একটি শামুকের আরএনএতে প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে তারা সফল হয়েছেন স্মৃতি স্থানান্তরে। কাজটি করতে ওই দুটি শামুককে ‘প্রতিরক্ষামূলক প্রতিক্রিয়া’ উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

কাজটি করতে গবেষকরা ক্যালিফোর্নিয়া সি স্লাগ (Aplzsia californica) নামে দুটি শামুকের শরীরে যখন আরএনএ প্রবেশ করান তখন তাদের অন্যান্য সংবেদনশীলতার কোনো পরিবর্তন হয়নি।

এজন্য গবেষকরা শামুক দুটির শরীরে মৃদু ইলেকট্রিক শক দেন। এরপর তারা দেখেন শামুকগুলো তাদের নিজেদের রক্ষা করার জন্য প্রতিরক্ষামূলক যে প্রক্রিয়াটি শেখানো হয়েছিল সেটি রিফ্লেক্স করে এবং ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে শামুক দুটি পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে।

গবেষকরা যখন ধারাবাহিকভাবে মুদু আঘাত করতে থাকেন তখন তারা দেখেন, শক দেওয়া শামুকগুলো আত্মরক্ষার জন্য ৫০ সেকেন্ডে স্থায়ী সংবেদনশীলতা প্রকাশ করছে। আর যেগুলোকে শক দেওয়া হয়নি সেগুলো মাত্র এক সেকেন্ডের জন্য তাদের প্রতিরক্ষা সংবেদনশীলতা প্রকাশ করেছে।

এর থেকে গবেষকরা সিদ্ধান্ত নেন, যে শামুকগুলোকে শক দেওয়া হয়েছিল সেগুলো যেকোনো উদ্দীপনার বিষয়ে সংবেদনশীলতা প্রকাশ করছে।

এরপর বিজ্ঞানীরা শক পাওয়া শামুকের স্নায়ুতন্ত্র থেকে আরএনএ বের করে সেগুলো কিছুসংখ্যক শক না পাওয়া শামুকের শরীরে প্রবেশ করান যারা আগে কোনো ধরনের সংবেদনশীলতা দেখায়নি। তবে আরএনএ প্রবেশ করানোর পরে শামুকগুলো আগে সেই লেজে শক দেওয়া শামুকের মতোই সংবেদনশীলতা দেখায়। আর তা প্রায় ৪০ সেকেন্ড স্থায়ী হয়।

শুধু তাই নয়, অনুবীক্ষণযন্ত্রের নিচে দুই রকমের শামুকের সংবেদনশীল স্নায়ুর পর্যবেক্ষণ করেও একই ফল পান তারা।

গবেষক দলের অন্যতম সদস্য লস অ্যাঞ্জেলেসের ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডেভিড গ্লানজম্যান বলেন, এই গবেষণার ফলাফলটি ঠিক স্মৃতি স্থানান্তরের মতোই ঘটনা।

কাজটি করতে কোনো শামুককেই সেভাবে আঘাত দেওয়া হয়নি। সমুদ্রে তারা শত্রুর হাত থেকে বাঁচতে যেভাবে কালি ছড়িয়ে নিজেদের আড়াল করে সেই প্রক্রিয়াটাই এক্ষেত্রে বাহ্যিক বল প্রয়োগ করে করা হয়েছে। আর বলের বিপরীতে তারা সংবেদনশীল হয়ে কালি নিঃসরণ করেছে।

আগে মনে করা হতো প্রাণীর দীর্ঘস্থায়ী স্মৃতিগুলো সাধারণত মস্তিষ্কের সিন্যাপসিস বা প্রান্তাকর্যে জমা হয়। কেননা প্রতিটি নিউরন বা স্নায়ু কোষে থাকে হাজার হাজার সিন্যাপসিস বা প্রান্তাকর্ষক থাকে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads