• মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

বিদেশ

নারীকে চাপা দিয়ে থমকে গেল উবারের চালকবিহীন ট্যাক্সি

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২০ মার্চ ২০১৮

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের টেম্পি শহরে উবারের চালকবিহীন গাড়ির ধাক্কায় এক পথচারী নিহত হয়েছেন। ওই দূর্ঘটনার পর উত্তর আমেরিকার সব নগরীতে এই ধরণের গাড়ির পরীক্ষা স্থগিত করার কথা জানিয়েছে উবার।

বিবিসি জানিয়েছে, রোববার রাতে টেম্পির একটি রাস্তা পার হওয়ার সময় ৪৯ বছর বয়সী এক নারীকে উবারের চালকবিহীন গাড়ি ধাক্কা দেয়।  হাসপাতালে নেওয়া হলে মারা যান তিনি। এর আগে উবারের এই চালকবিহীন ট্যাক্সি বশ কয়েকবার দুর্ঘটনায় পড়লেও এবারই এ ধরনের প্রথম প্রাণঘাতী দুর্ঘটনা ঘটল। পথচারী নিহত হওয়ার খবরটি ‘খুবই মর্মান্তিক’ বলে মন্তব্য করে নিহতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন উবারের প্রধান দারা খোসরোশাহি। টুইট বার্তায় তিনি ওই সমবেদনা জানান।

তিনি বলেন, ‘স্থানীয় আইপ্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। কী ঘটেছে তা জানার চেষ্টা করছি। আর নিহতের পরিবারের কথাটাও ভাবছি।’

পুলিশ বলেছে, নিরাপত্তার বিষয়টি খেয়াল রাখার জন্য গাড়ির চালকের আসনে একজন মানুষও ছিল। তবে এলেইন হার্জবার্গ নামের ওই নারী পথচারী ক্রসিং দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিল না বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়ার পর সেখানে তার মৃত্যু হয়।

 যুক্তরাষ্ট্রের ‘ন্যাশনাল হাইওয়ে ট্রাফিক সেফটি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’ এবং ‘ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি বোর্ড’ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে টেম্পিতে তদন্ত দল পাঠাচ্ছে বলে জানিয়েছে।

এই ধরনের স্বচালিত গাড়িকে মোটর শিল্পের ভবিষ্যৎ বলে বর্ণনা করা হচ্ছে। ২০২১ সালে যুক্তরাজ্যেও এরকম স্বচালিত গাড়ি বাজারে আসবে বলে শোনা যাচ্ছে। বলা হচ্ছে, এসব গাড়ি সড়ক দুর্ঘটনার মাত্রা কমিয়ে আনবে। ফোর্ড, জেনারেল মোটরস, টেসলা ও ওয়াইমোর মতো কোম্পানিগুলো স্বচালিত গাড়ির গবেষণায় প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করেছে। নতুন এই প্রযুক্তি ব্যবহারে এগিয়ে থাকার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের অনেকগুলো অঙ্গরাজ্য এসব স্বচালিত গাড়ির পরীক্ষামূলক চলাচলকে স্বাগত জানিয়েছে। কিন্তু প্রযুুক্তি পুরোপুরি ব্যবহার উপযোগি হওয়ার আগেই তারা এসব গাড়িকে রাস্তায় নামার অনুমতি দিয়েছে বলে সতর্ক করেছেন অনেক বিশেষজ্ঞ।  

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads