• মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ৫ চৈত্র ১৪২৪
ads
সব অপারেটরের জন্য এক কলরেট হচ্ছে

সব অপারেটরের জন্য এক কলরেট হচ্ছে

প্রতীকী ছবি

অর্থ ও বাণিজ্য

সব অপারেটরের জন্য এক কলরেট হচ্ছে

  • শাহাদাত হোসেন
  • প্রকাশিত ০৪ আগস্ট ২০১৮

দেশের সব মোবাইল অপারেটরের জন্য একই কলরেট নির্ধারণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এর আওতায় সব অপারেটরের জন্য সর্বনিম্ন কলরেট হবে ৫০ পয়সা এবং সর্বোচ্চ দেড় টাকা। অননেট-অফনেট সব কলের ক্ষেত্রেই নতুন এ নিয়ম প্রযোজ্য হবে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) কলরেট এক করার পক্ষে যুক্তি দেখালেও এ নিয়ে দ্বিমত পোষণ করেছেন খাতসংশ্লিষ্ট অনেকেই। বর্তমানে অননেট কলের মিনিটপ্রতি সর্বনিম্ন রেট ২৫ পয়সা ও অফনেটে ৬০ পয়সা এবং সর্বোচ্চ কলরেট ২ টাকা। টেলিযোগাযোগ খাতসংশ্লিষ্টদের সঙ্গে গত বুধবার গণভবনে বৈঠকে নতুন কলরেট বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জহুরুল হকসহ মোবাইল অপারেটরদের শীর্ষ কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

কমিশন সূত্র জানায়, কলরেটের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন সীমা বাস্তবায়নে শিগগিরই অপারেটদের নির্দেশ দেওয়া হবে। এটি বাস্তবায়িত হলে গ্রাহক যেমন উপকৃত হবে তেমনি সব অপারেটরের মধ্যে অসম প্রতিযোগিতার বিষয়টিও দূর হবে বলে মনে করছে বিটিআরসি।

তবে খাতসংশ্লিষ্টদের মতে, বর্তমানে গ্রাহকরা অননেটে ২৫ পয়সা রেটে কথা বলতে পারছেন। কিন্তু সর্বনিম্ন ৫০ পয়সা রেট নির্ধারণ করা হলে তাদের খরচ বাড়বে। এ ছাড়া শিগগিরই নম্বর না বদলে অপারেটর বদলের সুবিধা (এমএনপি) চালু হতে যাচ্ছে। এতেও এবং গ্রাহকদের ওপর খরচের বোঝা চাপবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশের খবরকে বলেন, সবগুলো মোবাইল অপারেটরের ব্যবসা সমান নয়। তাই আমরা যদি সব অপারেটরের জন্য একই কলরেট নির্ধারণ না করি তাহলে ব্যবসা এককভাবে বড় অপারেটরের হাতে চলে যাবে। প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে মোবাইল অপারেটরগুলোর মধ্যে যেন কোনো অসমতা তৈরি না হয় এবং কেউ যেন মনোপলি করতে না পারে সে জন্যই এ পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

মন্ত্রীর দাবি, বর্তমানে অননেটে কলরেট ২৫ পয়সা বলা হলেও বাস্তবে এ রেট গড়ে ৪৯ পয়সা। নতুন কলরেট চালু হলে অননেটে কথা বলার খরচ কমে যাবে— জরিপে এমন তথ্য উঠে এসেছে বলেও জানান তিনি।

মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, এমএনপি সেবা চালু হলেও সবগুলো অপারেটর সমানভাবে প্রতিযোগিতার সুযোগ পাবে নতুন কলরেটের মাধ্যমে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads