• বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫
ads
আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুরু

গতকাল সকাল থেকে পুনরায় শুরু হয় আমদানি-রফতানি

সংগৃহীত ছবি

অর্থ ও বাণিজ্য

আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি শুরু

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

তিন দিন বন্ধ থাকার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে মাছ ছাড়া অন্য সব পণ্য আমদানি-রফতানি গতকাল সোমবার শুরু হয়েছে। ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলায় ব্যবসায়ীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে গত বুধবার থেকে মাছ ও শুক্রবার থেকে সব পণ্য রফতানি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ছিল। দুই দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে সমঝোতার পর গতকাল সকাল থেকে পুনরায় শুরু হয় আমদানি-রফতানি। তবে এ সময় দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক ছিল।

আখাউড়া স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা জানান, আগরতলায় বিজিবি ও কংগ্রেসপন্থি ব্যবসায়ীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল আগে থেকেই। পাশাপাশি আগরতলা আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক খোকন ভৌমিকের সঙ্গে তার অংশীদারদের আর্থিক লেনদেন নিয়ে বিরোধ চলছিল। এরই মধ্যে খোকন ভৌমিক ব্যবসার কাজে বাংলাদেশে চলে আসেন। এতে অংশীদাররা ক্ষিপ্ত হয়ে গত বুধবার তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তালা লাগিয়ে দেওয়ার পাশপাশি বাংলাদেশ থেকে আমদানি করা মাছ, পাথর, তুলাসহ বিভিন্ন পণ্য বন্দরের প্রধান ফটকে আটকে দেন। বন্দরে আটকে থাকা সব মাছ পচে নষ্ট হয়ে যায়। বুধ ও বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত বন্দরে আটকে থাকা সব পণ্য পারাপার করা হয়েছে। পরে শনিবার সকাল থেকে মাছসহ সব পণ্য রফতানি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখেন ব্যবসায়ীরা।

আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা মাছসহ সব পণ্য রফতানি বন্ধ করে দেন। পরে সে দেশের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক সমঝোতায় পৌঁছানোর পর মাছ ছাড়া অন্য সব পণ্য আমদানি-রফতানি শুরু হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads