• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
দর্শক বিচারে এগিয়ে ‘মেন্টাল ফেমিলি’

‘মেন্টাল ফেমিলি’ নাটকের চিত্র

ছবি : সংগৃহীত

আনন্দ বিনোদন

দর্শক বিচারে এগিয়ে ‘মেন্টাল ফেমিলি’

  • আল কাছির
  • প্রকাশিত ০৯ জুলাই ২০১৮

গেল ঈদে টেলিভিশনে প্রচারিত নাটকগুলোর মধ্যে দর্শকের বিচারে সবচেয়ে এগিয়ে রয়েছে ‘মেন্টাল ফেমিলি’। টেলিভিশন রেটিং পয়েন্টে (টিআরপি) দেখা যায় প্রায় ৪০০ ঈদের নাটকের মধ্যে ‘মেন্টাল ফেমিলি’র অবস্থান এককভাবে ৯ম। আর ইউটিউবে দুই সপ্তাহে নাটকটি ৫২ লাখ বার দেখা হয়েছে, যা এই গত ঈদে প্রচারিত নাটকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি।

 

এদেশে অধিকাংশ পরিবারে মেয়েরা বিয়ের আগে যতটা মূল্যায়ন পান, বিয়ের পর ততটা পান না। অন্যদিকে বাবা-মা জীবিত থাকলে পরিবারে মেয়েদের যতটা মূল্যায়ন থাকে, তাদের মৃত্যুর পর তেমনটা থাকে না। এমন বাস্তব চিত্র সাবলিলভাবে নাকটিতে ফুটে উঠেছে- যা এর জনপ্রিয়তার কারণ হিসেবে মনে করছেন অনেক দর্শক।

নাট্যকার বৃন্দাবন দাসের কাছে প্রশ্ন ছিল- এত জনপ্রিয় একটি নাটক আমারা উপহার পেলাম, যেটি এখন দর্শকের মুখে মুখে, দর্শকপ্রিয়তা পাওয়ার বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন? উত্তরে তিনি বলেন, ‘‘আমি যখন নাটক লিখি প্রতিটি নাটকই আমার কাছে সন্তানের মতো, চেষ্টা থাকে যেন সব নাটকই ভালো হয়। কোন নাটক দর্শক কীভাবেভাবে নেবে, সেটা বলা মুশকিল, তবে ‘মেন্টাল ফেমিলি’র ব্যাপারে আমি বেশ আশাবাদী ছিলাম। আর তার মূল্যায়নও পেলাম। খুব ভালো লাগছে দর্শকের এত এত মন্তব্য দেখে।’’  

নাটকটি সম্পর্কে পরিচালক দীপু হাজরা বলেন, ‘‘বৃন্দাবন দাস দাদার লেখা নাটক পাওয়ার জন্য অধির আগ্রহে এক বছর অপেক্ষা করি। দাদার লেখা মানে আমার পূর্ণ ঈদের আনন্দ। আর সেই আনন্দ আরো রাঙিয়ে তুললো ‘মেন্টাল ফেমিলি’। ধন্যবাদ বৃন্দাবন দাদা, ধন্যবাদ চঞ্চল দা, খুশি আপা, আ.খ.ম হাসান, মিলিসহ সব শিল্পী ও কলাকুশলীদের। সবার পরিশ্রমেই একটি ‘মেন্টাল ফেমিলি’ তৈরি হয়েছে।’’

বৃন্দাবন দাসের রচনা ও দীপু হাজরার পরিচালনায় নির্মিত আরো নাটক হলো- ‘শাপলা স্টুডিও’, ‘গান মজিদ’,‘লাভ রশিদ’, ‘মফিজ বি.এস.সি’, ‘সেতু-বন্দন’, ‘উসিলা’, ‘হেপি ফেমিলি’।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads