• বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৭
সম্বাবনার শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্র

শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্র

সংগৃহীত ছবি

ফিচার

সম্বাবনার শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্র

  • প্রকাশিত ১৬ অক্টোবর ২০১৮

মোকাম্মেল মিশু, ভোলা

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নে ১৯৯৪ সালে আবিষ্কৃত শাহবাজপুর গ্যাসক্ষেত্রের চারটি কূপে বিপুল পরিমাণ গ্যাস মজুত রয়েছে। এসব কূপ থেকে প্রতিদিন ৭০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা সম্ভব। বর্তমানে উত্তোলন করা গ্যাস থেকে ভোলায় ভেনচার এনার্জি রিসোর্স লিমিটেডের ৩৪.৫ মেগাওয়াট রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্ট এবং ভোলার বোরহানউদ্দিনে ২২৫ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পাওয়ার প্ল্যান্ট বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। বর্তমানে এ দুটি পাওয়ার প্ল্যান্ট থেকে গড়ে ২০০ থেকে ২১০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়। ভোলা জেলার চাহিদা ২৫ থেকে ৩০ মেগাওয়াট। অবশিষ্ট বিদ্যুৎ মেরিন ক্যাবেলের মাধ্যমে জাতীয় গ্রিডে দেওয়া হয়। এছাড়া এই গ্যাস থেকে সুন্দরবন গ্যাস কোম্পানির মাধ্যমে ভোলার আবাসিক লাইনে গ্যাস সরবরাহ করা হয়।

অন্যদিকে ভোলার বোরহানউদ্দিনে ২২৫ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন আরো একটি গ্যাসভিত্তিক পাওয়ার প্ল্যান্ট নির্মাণের কাজ চলছে। ২০১৭ সালে ভোলায় ২টি অনুসন্ধান কূপ খনন করা হয়। সেখানেও বিপুল পরিমাণ গ্যাস পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন কোম্পানি (বাপেক্স) এ কূপ খনন করে। ভোলায় প্রাপ্ত গ্যাস দিয়ে এখানে একটি সার কারখানা স্থাপনের কথা রয়েছে। এছাড়া এই গ্যাসের ওপর নির্ভর করে ভোলার  সদুর চরে একটি সিরামিক কারখানা স্থাপনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। পাইপলাইনের মাধ্যমে ভোলার গ্যাস বরিশাল ও খুলনায় নিয়ে সরকারের ব্যাপক শিল্পায়নের পরিকল্পনা রয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads