• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
বিশ্বের সেরা ১০ পানীয়

ক্লান্তি দূর করতে চাই পানীয়

ইন্টারনেট

খাদ্য

বিশ্বের সেরা ১০ পানীয়

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২০ মে ২০১৮

১. ম্যাঙ্গো লাচ্ছি (ভারত)
সূর্যের বেগুনি রশ্নি থেকে ত্বক বাঁচানোর জন্যে অনেক ফেয়ার নেস ক্রিম আছে। ভেতরের ক্লান্তি দূর করার উপায় কি? সেটা হলো এই ম্যাঙ্গো লাচ্ছি। আম, টক দই এবং দুধের সমস্বয়ে তৈরী। ভারতের পানীয়র তালিকায় এটা এক নম্বরে আছে।

রেড বুল

২. রেড বুল (অস্ট্রেলিয়া)
ফলের রস, হালকা চিনি এবং ক্যাফিন থেকে তৈরী রেড বুল অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষস্থানীয় এনার্জি ড্রিংক। রেফ্রিজারেটরে রেখে ঠান্ডা করে রেড বুল যারা খেয়েছেন তারা বলতে পারবেন এটা কতো দ্রুত আপনার ক্লান্তি শুষে নিতে সক্ষম।

ইয়াকুল্ত

৩. ইয়াকুল্ত (জাপান)
ইয়াকুল্তের ১০০ মিলিমিটারেরে একটা বোতল পুরোটা যে খেয়েছেন তিনি বলতে পারবেন এর কি স্বাদ। জাপানিদের প্রিয় পানীয় এটি। এটিও এক ধরনের লাচ্ছি। কিন্তু এতে দুধের পরিমান কম। ফলের রস আর হালকা চিনি। সাথে খাদ্য উপযোগী রং।

পিনা কোলাদা

৪. পিনা কোলাদা (পুর্তো রিকো)
ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের দেশ পুর্তো রিকো। পানীয় তৈরীর ক্ষেত্রে এই দেশের তুলনা নেই। ‘পিনা কোলাদা’ তাদের এক পানীয়র নাম। এর সুনাম বিশ্বব্যাপী। উপকরণ খুব সামান্য। আনারসের রস, দুধ আর পাম গাছের হ্যামক ফলের রসেস সমন্বয়।

কে

৫.কেন্দোল (ইন্দোনেশিয়া)
ইন্দোনেশিয়ার কুতা সৈকতে বিদেশীরা ছুটে যান এই কেন্দোল পান করতে। নারিকেলের দুধে সামান্য চিনি মিশিয়ে পরিবেশন। সঙ্গে কয়েক টুকরো বরফ।

f

৬. ফানটা (জার্মানি)
হ্যা, এটা আমাদের দেশে যেই ফানটা পাওয়া যায় সেটাই। কিন্তু, আমাদের দেশে এর একচেটিয়া প্রভাব নেই। জার্মানিতে আছে। বেশির ভাগ জার্মান কোমল পানীয় বলতে শুধু এটাকেই বোঝে।

মোজিতো

৭. মোজিতো (কিউবা)
এটা কিউবার এক নাম্বার পানীয় হলেও এটার আবিস্কারক আফ্রিকানরা। কারো হাত ধরে এটা চলে এসেছে কিউবায়। লেবুর রস, চিনি, পুদিনা পাতা এবং সোডা পানির সমন্বয়ে তৈরী হয় এটি। সাথে কয়েক টুকরো বরফ।

cai

৮. কাইপিরিনহা (ব্রাজিল)
ক্লান্তি নিবারনে ব্রাজিলিয়ান তারকা ফুটবলার রোনালদিনহো এই পানীয় পান করতেন। বিশ্বকাপে হ্যাট্রিক গোলের পরও তিনি এটাই পান করেছিলেন। এটা ব্রাজিলের জাতীয় পানীয়র খেতাব জিতেছে। লেবুর রস, চিনি আর বরফ কুচি-এই তিনটি একসাথে করলেই হয়ে যাবে কাইপিরিনহা।

ককোলেট মিল্কশেক

৯. ককোলেট মিল্কশেক (যুক্তরাষ্ট্র)
তরল চকোলেট এবং দুধের সংমিশ্রনে তৈরী করা হয় এটি। বরফ সহযোগে পরিবেশন করা হয়। এটি যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় পানীয়।

থাই আইসড টি

১০. থাই আইসড টি (থাইল্যান্ড)
গাঢ় চায়ের লিকারের সঙ্গে দুধ, কমলার রস এবং ক্যাফিন মিশিয়ে এই চা তৈরী করা হয়। এটি আসলে এক প্রকার কোল্ড টি। তাই কাপে কয়েক টুকরো বরফ দেওয়া হয়। চীনের রেস্তোরা গুলোতে এই চা খুব চলে। কিন্তু এর রেসিপি থাইল্যান্ড থেকে কপি করা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads