• শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
ঈদের আগে লন্ডন যেতে পারেন মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

সংরক্ষিত ছবি

রাজনীতি

ঈদের আগে লন্ডন যেতে পারেন মির্জা ফখরুল

  • রেজাউল করিম লাবলু
  • প্রকাশিত ২৯ মে ২০১৮

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে করণীয় নির্ধারণে লন্ডনে যেতে পারেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ঈদের আগেই তিনি লন্ডনে যেতে পারেন। এমনটাই জানিয়েছে দলের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র। সরকারবিরোধী আন্দোলন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ, ২০-দলীয় জোটের বাইরে সমমনা দলের সংখ্যা বৃদ্ধি, প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করাসহ আগামী দিনের করণীয় নির্ধারণে সেখানে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন তিনি। লন্ডন সফর প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টিকে গুঞ্জন বলে এড়িয়ে যান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক যুক্তরাজ্য বিএনপির এক নেতা বাংলাদেশের খবরকে বলেন- আগামী নির্বাচন, আন্দোলন নিয়ে বিএনপি, ২০-দলীয় জোট, রাজনৈতিক সমমনা এবং বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নানা ধরনের মত রয়েছে। এসব মত ভিন্ন ভিন্ন হলেও নানা কারণে যৌক্তিক। তবে সবার মত গ্রহণ করার সুযোগ নেই। সঙ্গত কারণে আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে আন্দোলনের চূড়ান্ত কর্মকৌশল ও দিনক্ষণ ঠিক করার প্রয়োজন অনুভব করছে বিএনপি। এজন্য সব ধরনের প্রস্তাবনা নিয়ে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছে আসতে পারেন মহাসচিব।

বিএনপির ওই প্রবাসী নেতা জানান, গত রোববার তার লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ইফতার পার্টিসহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি থাকায় তিনি ১ অথবা ২ জুন লন্ডন আসতে পারেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক স্থায়ী কমিটির সদস্য বাংলাদেশের খবরকে বলেন, চেয়ারপারসন কারাগারে রয়েছেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লন্ডনে রয়েছেন। ফোনে সব ধরনের নির্দেশনা নেওয়া কিংবা দেওয়া সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে আগামী দিনের করণীয় নির্ধারণে মহাসচিব লন্ডনে যেতেই পারেন।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিতে চায়। সেজন্য নির্বাচনের পরিবেশের বিষয়ে ইতোমধ্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ইঙ্গিত দিয়েছেন। পরিবেশের জন্য নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠন, সংসদ ভেঙে দেওয়া, সেনা মোতায়েনসহ কয়েকটি মৌলিক প্রশ্নে সমঝোতা করেই বিএনপি নির্বাচনে যেতে চায়। আর এটি একমাত্র আন্দোলনের মাধ্যমেই আদায় হতে পারে। আর সেটা দ্রুত সময়ের মধ্যেই শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে। এই আন্দোলনের নির্দেশনা দেবেন লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

এর আগে বিএনপির অবশিষ্ট জেলা কমিটি, ঢাকা মহানগর বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন তারেক রহমান। এ বিষয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান বাংলাদেশের খবরকে বলেন, পুনর্গঠন কাজ দ্রুত শেষ করতে নির্দেশনা এসেছে। সে মোতাবেক তারা কাজ করছেন। নির্ধারিত সময়ে পুনর্গঠন কাজ শেষ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads