• মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে আজ শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

ছবি: সংগৃহীত

রাজনীতি

খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২০ জুলাই ২০১৮

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে কোনো নির্বাচন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আজ শুক্রবার খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীর নয়াপল্টনে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নির্বাচন করতে হলে এক নম্বর শর্ত- খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। নির্বাচনের আগে বর্তমান সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য এবং সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের জন্য সমস্ত দল ও সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বর্তমান সরকারের দুঃশাসন যেভাবে বুকে চেপে আছে, তার থেকে মুক্তির জন্য জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন।’

জোট গঠনের জন্য গণতান্ত্রিক বাম মোর্চাকে অভিনন্দন জানিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা কে রাজনৈতিক ৯টি দল মিলে জোট গঠন করেছে। সকল গণতন্ত্রকামী রাজনৈতিক দলগুলোকে আহ্বান জানাব ঐক্য গড়ে তোলার। আন্দোলনের মাধ্যমে দাবি আদায় করা হবে, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে। আন্দোলনের মাধ্যমেই দাবি আদায় করা হবে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আরও বলেন, আজকে বাংলাদেশের প্রত্যকটি মানুষ ভয়ে আছে। তারা জানে না যে কখন গুম হয়ে যায়। কোটা আন্দোলনকারীদের তুলে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। তাদের কারাগারে পাঠানো হচ্ছে। নির্যাতন করে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে।  আজকে ছাত্রলীগের যে ভূমিকা খানের শাসনামলে বাহিনীর ভূমিকার চেয়েও ভয়াবহ। আজকে যারা কোটা সংস্কারের জন্য আন্দোলন করছে তাদের মায়েরা বলছে আমার ছেলের চাকরি চাইনা, আমার ছেলেকে ফিরিয়ে দাও।

বিএনপি মহাসচিব আরো বলেন, বাংলাদেশ আজ কেউ নিরাপদ নয়। আমরা এই অবস্থার পরিবর্তন চাই বিএনপিকে ক্ষমতায় আনার জন্য নয়, এমপি মন্ত্রী হওয়ার জন্য নয়, এদেশের মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দেবার জন্য আমরা একটা পরিবর্তন চাই। ‌আমরা আমাদের অধিকার ফিরে পেতে চাই। স্বাধীনতা ফিরে পেতে চাই আমরা নির্ভয়ে চলার অধিকার ফিরে পেতে চাই।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ অংশ নেন দলটির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।  বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নেতাকর্মীরা বিশাল বিশাল মিছিল সহকারে যোগ দেন সমাবেশে।  কাকরাইল মোড় থেকে ফকিরাপুল পর্যন্ত মানুষে আর মানুষে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।

গত ১৫ জুলাই সংবাদ সম্মেলনে সমাবেশের এই কর্মসূচি ঘোষণা দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।  তিনি বলেছিলেন, দেশনেত্রীকে চিকিৎসা ও মুক্তি না দেয়া এবং তার সঙ্গে অমানবিক আচরণ করার প্রতিবাদে শুক্রবার ঢাকাসহ সারা দেশে জেলা ও উপজেলা সদরে বিক্ষোভ সমাবেশ হবে। ঢাকায় বেলা ৩টায় নয়াপল্টনে আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ আহ্বান করছি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালত। এর পর  থেকে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারেই আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads