• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
শিশু-কিশোরদের রক্ত চুষেও থামেনি সরকার : বিএনপি

বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

সংরক্ষিত ছবি

রাজনীতি

শিশু-কিশোরদের রক্ত চুষেও থামেনি সরকার : বিএনপি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১০ আগস্ট ২০১৮

কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে র্যাব-পুলিশের ‘বর্বর দমন অভিযান’ চলছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ অভিযোগ করে বলেন, দলীয় পাণ্ডাদের দিয়ে শিশু-কিশোরদের রক্ত চোষার পরও ক্ষান্ত হয়নি সরকার। সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে প্রায় সবাই বলেছেন, কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের দাবি ন্যায়সঙ্গত। তাহলে এখন তাদের ওপর কেন এই সহিংসতা?

অবিলম্বে র্যাব-পুলিশের ‘বর্বর দমন অভিযান’ বন্ধের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে রাজধানীর ১৮ থানায় ৩৫টি মামলা দেওয়া হয়েছে, যে মামলায় অজ্ঞাতনামা হাজার হাজার শিক্ষার্থীকে জড়িত করা হবে এবং ইতোমধ্যে ৪৫ জনকে আটকের কথা পুলিশ স্বীকার করেছে; ২২ জন রিমান্ডে আছে। রিজভী বলেন, নিরপরাধ এসব শিক্ষার্থীকে আটকের পর কোমরে রশি বেঁধে রিমান্ডে নিয়ে পৈশাচিক নির্যাতন করা হচ্ছে। বুধবার সারা দেশে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হানাদারি অভিযানে নিন্দার ঝড় উঠেছে। এই অভিযান সরাসরি কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ওপর এক নির্মম আগ্রাসন। আন্দোলনে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা আতঙ্কিত-উৎকণ্ঠিত মন্তব্য করে তিনি বলেন, সরকারের ক্রোধের আগুনে স্কুলপড়ুয়া সন্তানদের ওপর কী বিভীষিকা নেমে আসবে- তা নিয়ে শিহরিত হয়ে উঠেছেন অভিভাবকরা। বুধবার বসুন্ধরাসহ ঢাকা মহানগরীতে সরকারি বাহিনীর হাজার হাজার সদস্য চিরুনি অভিযান চালিয়েছে। অরাজনৈতিক কিশোর-কিশোরী ছাত্রছাত্রীদের এই ন্যায্য আন্দোলনকে দমানোর জন্যই ওই এলাকা আতঙ্কের জনপদে পরিণত করেছে পুলিশ।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের ওপর হামলার জন্য ছাত্রলীগকে দায়ী করে রিজভী বলেন, জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সংস্থা ও মিডিয়া, উন্নয়ন সহযোগী শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের ওপর ছাত্রলীগের এই সশস্ত্র হামলাকে সহিংস হামলা হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। ছাত্রলীগ আন্তর্জাতিকভাবে টেররিস্ট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। এখন প্রধানমন্ত্রী ও ওবায়দুল কাদের সাহেবরা সেই ছাত্রলীগ সন্ত্রাসীদের বাঁচাতেই হাসপাতালে ভর্তি দেখিয়ে তামাশা করছেন। তাদের বাঁচানোর পাঁয়তারা করছেন। কিন্তু এরা রেহাই পাবে না।

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads