• শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads

খেলা

হ্যারি কেনের গোল উপহার

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৩ এপ্রিল ২০১৮

আপিল করে সফল হয়েছে টটেনহ্যাম হটস্পার। স্টোক সিটির বিপক্ষে জয়সূচক গোল শেষমেশ উপহার হিসেবে পেয়েছেন হ্যারি কেনই। উপহারই বলা যায় একে। কারণ প্রিমিয়ার লিগের গোলস অ্যাক্রেডিটেশন প্যানেল শুরুতে গোলটি দিয়েছিল স্পারস মিডফিল্ডার ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনকে। আপিল করে গোলটি নিজের নামের পাশে যোগ করলেন কেন। গোল নামের পাশে বসায় চলতি মৌসুমে লিগে কেনের গোলসংখ্যা বেড়ে গিয়ে দাঁড়াল ২৫-এ। সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় শীর্ষে থাকা লিভারপুলের স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহর চেয়ে এখন চার গোলে পিছিয়ে রয়েছেন এই তারকা ইংলিশ ফরোয়ার্ড। ফলে থিয়েরি অঁরির পর টানা তৃতীয় মৌসুমে ইংলিশ লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতা হিসেবে গোল্ডেন বুট জেতার আশা জিইয়ে রইল কেনের।

শনিবার স্টোক সিটির মাঠে ২-১ গোলের জয়ের ম্যাচে ফ্রি কিক নেন এরিকসেন। তার কিকে উড়ে আসা বল প্রতিপক্ষ স্টোক সিটির জালে আশ্রয় নেওয়ার আগে আলতোভাবে স্পর্শ করে কেনের কাঁধ। এই জয়সূচক গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অতিথি স্পার শিবির। কিন্তু গোলের কৃতিত্ব থেকে যায় এরিকসেনের নামের পাশে। যে কারণে গোলটির আসল দাবিদার কেনের হয়ে আপিল করে প্রিমিয়ার লিগের জায়ান্ট ক্লাব টটেনহ্যাম কর্তৃপক্ষ।

ম্যাচ শেষে মেয়ের কসম খেয়ে গোলের জোরালো দাবি তোলেন ২৪ বছরের মেগাস্টার কেন, ‘আমার মেয়ের জীবনের দিব্যি খেয়ে বলছি, বলে আমি স্পর্শ করেছিলাম। এর চেয়ে বেশি কিছু করার ছিল না আমার। কিন্তু কর্তৃপক্ষ যদি এটা ইচ্ছা করে, তাহলে বাতিল করতে পারে। আর যদি তারা আমার কথা রাখে, তাহলে তারা রাখতে পারে। যা ঘটেছে সেটাই বললাম। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, আমরা ম্যাচটি জিতেছি।’

টটেনহ্যামের আবেদনের পর প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ গোলের ভিডিও ফুটেজ রিভিউ করে। ফুটবলারদের সাক্ষ্য গ্রহণ করে। শেষে তিন সদস্যের ইংলিশ লিগ গোলস অ্যাক্রেডিটেশন প্যানেল সম্মত হয়, বলে শেষ স্পর্শটা করেছিলেন কেনই। ফলে গোলটি পেয়ে যান টটেনহ্যামের এই তারকা প্লেমেকার।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads