• রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭
ads
আজ আর্জেন্টিনার টিকে থাকার লড়াই 

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি

ইন্টারনেট

ফুটবল

আজ আর্জেন্টিনার টিকে থাকার লড়াই 

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২১ জুন ২০১৮

ডি গ্রুপের প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে রাশিয়া বিশ্বকাপে শুরু ফেভারিট আর্জেন্টিনার। অন্যদিকে নাইজেরিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করে ক্রোয়েশিয়া। আজ রাত ১২টায় নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দু’দল। নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার লড়াই আর্জেন্টিনার। অন্যদিকে ২০ বছর পর গ্রুপ পর্ব পেরুনোর হাতছানি ক্রোয়েশিয়ার। তাই অভিন্ন লক্ষ্য ‘জয়’ পেতে মাঠে নামবে দু’দল।

এ ম্যাচ জেতার ওপর নির্ভর করছে আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার ভাগ্য। সে হিসাব-নিকাশ থেকে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে নতুন কৌশল সাজিয়েছেন কোচ জর্জ সাম্পাওলি। একাদশে পরিবর্তন তো থাকবেই, সঙ্গে ভাঙবেন প্রথম ম্যাচের ফরমেশন। প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ৪-২-৩-১ ফরমেশনে বিশ্বকাপ শুরু করেছিলেন তিনি। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ড্রয়ের পর দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ায় অ্যাটাকিং ফুটবল ছাড়া উপায় দেখছেন না সাম্পাওলি। এজন্য দুটি ছক কষে রেখেছেন সাম্পাওলি। প্ল্যান-‘এ’তে আছে ৩-৩-৩-১ ফরমেশন। যেখানে তিনি প্রতিপক্ষের গোলমুখে আগুয়েরোকে রেখে মেসি, পাভন আর পেরেজকে একটু পেছনে রাখতে চাইছেন। আর প্ল্যান-‘বি’তে অ্যাটাকিং ফুটবলের ছক ৩-৪-৩।

প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্সের কারণে একাদশে বেশ কিছু পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। বাদ পড়তে যাচ্ছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডিফেন্ডার মার্কোস রোহো, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া এবং মেজা। ফলে ভাগ্য খুলছে মার্সোস অ্যাকুইনা, গ্যাব্রিয়েল মেরকাদো এবং ক্রিস্তিয়ান পাভনের। আর্জেন্টিনার একাদশ হতে পারে- আক্রমণভাগে মেসির সঙ্গে খেলবেন আগুয়েরো আর পাভন। মাঝমাঠের দায়িত্ব থাকবে অ্যাকুইনা, মাসচেরানো, পেরেজ এবং স্যালভিওর ওপর। আর গোলরক্ষক কাবায়েরোর সঙ্গে রক্ষণ সামলাবেন নিকোলাস ওটামেন্ডি, গ্যাব্রিয়েল মেরকাদো ও তাগলিয়াফিকো।

এদিকে রাশিয়া বিশ্বকাপে উড়ন্ত সূচনা করেছে ক্রোয়েশিয়া। প্রথম ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে লুকা মডরিচের দল। দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারাতে পারলেই রাউন্ড অব সিক্সটিন নিশ্চিত হবে দলটির।

বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়ার সেরা সাফল্য ১৯৯৮ সালের ফ্রান্স বিশ্বকাপে তৃতীয় হওয়া। এরপর আরো তিনটি বিশ্বকাপ খেললেও গ্রুপ পর্ব পার হতে পারেনি দলটি। সুতরাং ২০ বছর মধ্যে প্রথমবারের মতো হাতছানি দ্বিতীয় পর্বে খেলার। যদিও বিশ্বকাপের পরিসংখ্যানে এগিয়ে মেসির দল। এর আগে একবার মুখোমুখি হয়েছিল দু’দল। ১৯৯৮ বিশ্বকাপে সেবার ১-০ গোলে জিতেছিল আর্জেন্টিনা। এছাড়া ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে তিনবার মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা ও ক্রোয়েশিয়া। এর একটি ড্র আর বাকি দুই ম্যাচে জিতেছে আলবিসেলেস্তারা।

অতীত পরিসংখ্যান আর মেসির ওপর আত্মবিশ্বাস থাকায় আর্জেন্টিনার জয়ের পাল্লাটাকে ভারি বলছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা। যদিও ছেড়ে কথা বলবে না ক্রোয়েশিয়া। অপেক্ষা এখন মাঠের লড়াইয়ের।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads