• সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৫
ads
অর্থ পাচারের অভিযোগ মেসির বিরুদ্ধে

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি

ছবি : ইন্টারনেট

ফুটবল

অর্থ পাচারের অভিযোগ মেসির বিরুদ্ধে

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২২ জুন ২০১৮

আরো এক দফা তথ্য সামনে আনলো পানামা পেপার। কালো টাকা গোপনে বিনিয়োগের এই তালিকায় যেমন ভারতীয় রথী-মহারথী শিল্পপতি পরিবারের নাম প্রকাশ্যে এসেছে, তেমনই জড়িয়েছে ফুটবলার লিওনেল মেসি, ফরাসি জুয়েলার পিয়ের কার্তিয়ে ও আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মউরিসিও মাকরির নামও।

এর আগে পানামা পেপারে নাম থাকায় আদালতের নির্দেশে পাকিস্তানে প্রধানমন্ত্রিত্ব খোয়াতে হয়েছিল নওয়াজ শরিফকে। অমিতাভ বচ্চনসহ বেশ কিছু বিশিষ্ট ভারতীয়র বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করার কথা জানিয়েছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। এই পটভূমিকায় ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টসের (আইসিআইজে) সঙ্গে দু’টি সংবাদপত্র মিলে বৃহস্পতিবার পানামা পেপারের আরো প্রায় ১২ লক্ষ তথ্য ফাঁস করেছে। এর মধ্যে ভারতীয়দের নাম রয়েছে ১২ হাজার তথ্যে। অভিযোগ এরা পানামায় শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত মোজ়াক ফনসেকার ল’ ফার্মের মাধ্যমে কোটি কোটি ডলার কালো টাকা বিদেশে বিনিয়োগ করেছেন। এই তালিকায় নতুন সংযোজন এয়ারটেলের মালিক শিল্পপতি সুনীল মিত্তালের ছেলে হাইক মেসেঞ্জারের সিইও কভিন ভারতী মিত্তল, পিভিআর সিনেমার মালিক অজয় বিজলি, এশিয়ান পেন্টেসের প্রতিষ্ঠাতা শিল্পপতি অশ্বিন দানির ছেলে জলজ অশ্বিন দানি।

পানামা পেপারের দ্বিতীয় দফার তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই মোদী সরকার জানিয়েছে, বিষয়টির ওপর তারা নজর রাখছে। সরকারের তরফে খবর, প্রথম পর্যায়ের পানামা পেপারের তথ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন তদন্ত সংস্থা ৭৪টি মামলা করে তদন্ত শুরু করে। এর মধ্যে ৬২টির ক্ষেত্রে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া গিয়েছে। ফলে সরকার ১১৪০ কোটি টাকার অঘোষিত সম্পত্তি চিহ্নিত করতে পেরেছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads